শিশুদের মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য এই ৫টি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 4 August 2022

শিশুদের মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য এই ৫টি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ!


প্রত্যেক পিতা-মাতা চান তাদের সন্তানের মন তীক্ষ্ণ হোক এবং এর জন্য তারা শৈশব থেকেই অনেক পদ্ধতি চেষ্টা করার চেষ্টা করেন। তবে আমরা আপনাকে বলি যে মস্তিষ্কের বিকাশ একটি অবিচ্ছিন্ন প্রক্রিয়া যার জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট পয়েন্ট বা পদক্ষেপগুলিতে ফোকাস করতে হবে। এটি একদিনের প্রক্রিয়া নয়। শিশুর মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য আপনাকে প্রতিদিন নির্দিষ্ট পদক্ষেপগুলি পুনরাবৃত্তি করতে হবে। ব্যায়াম এবং একটি স্বাস্থ্যকর খাদ্য মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য দুটি অপরিহার্য পদক্ষেপ। আমরা যদি এই এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কিত আরও তথ্য জানি, তাহলে নিবন্ধটি শেষ পর্যন্ত পড়ুন।


 1. ব্যায়াম এবং শারীরিক কার্যকলাপ


 ব্যায়াম শিশুদের মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য একটি অপরিহার্য পদক্ষেপ।  শিশুদের সুস্থ শরীর ও মনের জন্য অভিভাবকদের অবশ্যই কিছু শারীরিক ক্রিয়াকলাপ এবং ব্যায়ামের সাথে জড়িত থাকতে হবে।  আপনি শিশুর সাথে ব্যায়াম সেশনও সম্পূর্ণ করতে পারেন।  ব্যায়ামের একটি সুবিধা হল এটি মস্তিষ্কে রক্ত ​​​​প্রবাহ উন্নত করে।  মস্তিষ্কে ভালো রক্ত ​​প্রবাহের কারণে মস্তিষ্কে পর্যাপ্ত অক্সিজেন ও গ্লুকোজ সরবরাহ হয় এবং মানসিক মনোযোগ বৃদ্ধি পায়।


 2. শিশুকে মস্তিষ্ক বৃদ্ধিকারী খাবার খাওয়াতে বলুন


 শারীরিক পরিশ্রমের পাশাপাশি মস্তিষ্কের জন্য স্বাস্থ্যকর খাবারও প্রয়োজন।  দই, সবুজ শাকসবজি, বাদাম, ওটমিল, আপেল ইত্যাদি শিশুকে খেতে দিতে হবে।  আপনার শিশুকে ডিএইচএ সমৃদ্ধ খাবার দেওয়া উচিত, এটি একটি ওমেগা 3 ফ্যাটি অ্যাসিড যা একটি সুস্থ মনের জন্য উপকারী বলে মনে করা হয়।  আখরোট, সয়াবিন, ক্যানোলা তেল ইত্যাদিতে DHA পাওয়া যায়।


 3. মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য পড়া অপরিহার্য


 বই পড়াও এক ধরনের মস্তিষ্কের ব্যায়াম।  মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য শিশুকে প্রথম থেকেই বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।  আপনার শিশু যদি ছোট হয় এবং পড়তে না পারে তাহলে তাকে একটি ছবির বই দিন।  শিশুর আকৃতি বা ছবি দেখে তার নাম শনাক্ত করতে বলুন।  অনেক বিশেষজ্ঞ এবং ডাক্তার মনে করেন যে এটি শিশুর মস্তিষ্কের জন্য সেরা ব্যায়াম।


 4. শিশুর সাথে খেলুন


 শিশুর মন বিকাশের সবচেয়ে সহজ উপায় হল আপনার সন্তানের সাথে খেলার জন্য সময় বের করা।  এতে শিশুর মনও লাগবে, শিশুর সঙ্গে আপনার বন্ধন ভালো হবে এবং এই ধাপ অনুসরণ করলে শিশুর মস্তিষ্কেরও বিকাশ ঘটবে।  আপনি শিশুর সাথে বিভিন্ন ভয়েস রিকগনিশন গেম খেলতে পারেন।  এতে শিশুর শ্রবণ ক্ষমতা উন্নত হবে এবং মস্তিষ্কের ব্যায়াম হবে।  আপনি শিশুর জন্য এমন খেলনা নিয়ে আসেন, যার মাধ্যমে শিশু কিছু শিখতে পারে।


 5. শিশুর সাথে কথা বলুন


 একজন অভিভাবক হিসেবে, শিশুর মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য আপনার সন্তানের সাথে যোগাযোগ করা উচিত।  এর মাধ্যমে আপনি শিশুর চিন্তাভাবনা, তার পছন্দ-অপছন্দ সম্পর্কে জানতে পারবেন।  আপনি শিশুর সাথে যত বেশি কথা বলবেন এবং তার প্রশ্নের উত্তর দেবেন, আপনার সন্তানের মন ততই তীক্ষ্ণ হবে।


 মস্তিষ্কের বিকাশের সময় এই বিষয়গুলি মাথায় রাখুন 


 আপনার সন্তানকে পড়াতে বাধ্য করবেন না।


 আপনার সন্তানের অনুভূতি নিয়ে মজা করার ভুল করবেন না।


 শিশুর সাথে কথা বলার সময় আপনার স্বর যেন মৃদু হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।


 শিশুর শারীরিক বা মানসিক বিকাশের জন্য তাকে অতিরিক্ত খাওয়াতে বাধ্য করবেন না।


 চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া শিশুর খাদ্যতালিকায় নতুন কিছু অন্তর্ভুক্ত করবেন না।


 আপনার জন্য একটি বিশেষ পরামর্শ হল ধৈর্য ধরুন।  প্রতিটি শিশু তার নিজস্ব গতিতে শেখে।  শিশু যদি স্লো লার্নার হয় তাহলে তাতে কোনো ক্ষতি নেই, আপনি শিশুর সাথে যত বেশি কথা বলবেন, সে তত বেশি সক্রিয় হবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad