জিরা খাওয়ার কয়েক ডজন উপকারিতা আছে, তবে খাওয়ার নিয়ম জেনে নিন - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 30 August 2022

জিরা খাওয়ার কয়েক ডজন উপকারিতা আছে, তবে খাওয়ার নিয়ম জেনে নিন


ভারতে, জিরা ছাড়া রান্নাঘর অসম্পূর্ণ বলে মনে করা যেতে পারে। কারণ জিরার টেম্পারিং ছাড়া ভারতীয় প্লেটে স্বাদ হয় না। রান্নাঘরে জিরা সহজেই পাওয়া যায়। আপনি রান্নায় জিরা ব্যবহার করেন। এছাড়াও, এই জিরা আপনার স্বাস্থ্যের জন্যও খুব উপকারী। প্রতিদিন এটি খেলে পেট ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার সমস্যা দূর হয়। প্রাচীনকাল থেকেই এর জন্য জিরা ব্যবহার হয়ে আসছে। আপনার যদি ব্রণ, কোলেস্টেরল বা পেট সংক্রান্ত রোগ থাকে, তাহলে জিরা খাওয়ার চেষ্টা করুন। কিভাবে খেতে হয় তা এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।


মন তীক্ষ্ণ


আপনি কি আজকাল ছোট ছোট জিনিসগুলিও ভুলে যান? আজকাল অনেকেই এই সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। যদি আপনার সাথেও এটি হয়ে থাকে, তাহলে আপনার মনকে শাণিত করতে আপনার খালি পেটে জিরা খাওয়া উচিত। জিরাতে রয়েছে খনিজ এবং ভিটামিন যেমন রাইবোফ্লাভিন, ভিটামিন বি৬, জেক্সানথিন এবং নিয়াসিন যা মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়ায় এবং স্মৃতিশক্তি বাঁচায়। জিরা মানসিক স্বাস্থ্যকে শক্তিশালী রাখে এবং মস্তিষ্কের কোষগুলিকে পুষ্ট করে এবং স্মৃতিশক্তিকে প্রখর করে তোলে। স্মৃতিশক্তি তীক্ষ্ণ করতে রাতে জিরা ভিজিয়ে রেখে সকালে পান করুন।  


কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি পাবেন 


যদি আপনার পেট খারাপ থাকে এবং আপনার ঘন ঘন ডায়রিয়া হয়, তাহলে জিরা খাওয়া আপনার জন্য উপকারী হতে পারে। কারণ, জিরা অন্ত্রের জন্য প্রয়োজনীয় ভেষজগুলির মধ্যে একটি। যা হজম প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে এবং হজমের এনজাইমকেও উৎসাহিত করে। জিরাতে থাইমল এবং অপরিহার্য তেল রয়েছে যা লালা গ্রন্থিকে উদ্দীপিত করে, যা হজম প্রক্রিয়াকে সহজ করে তোলে। এছাড়াও, আপনি যদি খাবার হজম করতে চান, তাহলে জিরা একটি ভাল বিকল্প। এটি খাওয়া খাবার দ্রুত হজম করতে সাহায্য করে এবং বিপাককেও ত্বরান্বিত করে। যাদের কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা আছে তাদের জন্যও এটি উপকারী।    


 ব্রণ থেকে মুক্তি পান  


আপনি যদি অ্যালার্জি এবং ত্বকের সমস্যার সাথে মোকাবিলা করেন তবে জিরা এই সমস্যাগুলি কাটিয়ে উঠতে পারে। যারা ব্রণের সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য জিরা সবচেয়ে উপকারী। জিরার অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা ত্বকের ব্যাকটেরিয়া মেরে ব্রণ নিরাময়ে সাহায্য করে। এটি অ্যালার্জির কারণে সৃষ্ট যে কোনও প্রদাহ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। এছাড়াও, আপনাকে জানিয়ে রাখি যে জিরা খাওয়া ওজন কমাতেও সাহায্য করে। এটি চর্বি কমায় এবং দ্রুত ওজন কমায়। 


কিভাবে খালি পেটে জিরা খাবেন? 


১. প্রথমে জিরা রাতে ভিজিয়ে রাখুন এবং সকালে ঘুম থেকে উঠে তা খান এবং এক গ্লাস জল পান করুন। 

২. প্যানে ভাজার পর জিরাও খেতে পারেন। সকালে খালি পেটে ভাজা জিরা চিবিয়ে কুসুম গরম জল পান করুন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad