প্রমাণের অভাব! বেকসুর খালাস অনুব্রত - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 9 September 2022

প্রমাণের অভাব! বেকসুর খালাস অনুব্রত



প্রমাণের অভাব। বেকসুর খালাস অনুব্রত মণ্ডল।  মঙ্গলকোট রাজনৈতিক সহিংসতা মামলায় আদালত স্বস্তি অনুব্রতর।  প্রমাণের অভাবে অনুব্রত সহ জামিন ১৫। অনুব্রত মণ্ডলের আইনজীবী সৌভিক বসু ঠাকুর এমপিএমএলএ আদালতের বাইরে দাঁড়িয়ে বলেন, "সত্যমেব জয়তে... সত্যের জয়।" আদালত আমার মক্কেলকে খালাস দিয়েছেন।  মঙ্গলকোটের মল্লিকপুর গ্রামে রাজনৈতিক সহিংসতায় সরাসরি জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।  আসলে তার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চেষ্টা করা হয়েছে।  তিনি এই মামলা থেকে মুক্তি পেয়েছেন।” 



প্রসঙ্গত, সকাল থেকেই আত্মবিশ্বাসী বোধ করছিল অনুব্রত।  “কেউ সারাজীবন জেলে থাকে না, ছাড়া পায়। নিশ্চই ছাড়া পাব।” আসানসোল থেকে কলকাতায় পৌঁছে আত্মবিশ্বাসী অনুব্রত মণ্ডল। সকালে আসানসোল সংশোধনাগার থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, "দিদি আমার সঙ্গে আছেন, এটাই এনাফ!" আজ মামলায় প্রমাণের অভাবে আদালত তাকে খালাস দেয়।



এক যুগ আগে, মঙ্গলকোট এবং কেতুগ্রামে রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে রাজনৈতিক সহিংসতার ঘটনা ঘটেছিল।  গ্রামে বোমা হামলা হয়।  একই সময়ে কেবুলাল নামে এক CPI(M) কর্মীর হাত উড়ে যায়।  ওই দিন তিনি দলীয় কার্যালয় থেকে বাড়ি ফিরছিলেন।  ওই বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় মূল অভিযুক্তের তালিকায় ছিল অনুব্রত মণ্ডলের নাম।  সিপিআইএম শেখ শাহনওয়াজ, তার ভাই কাজল শেখ, আজাদ মুন্সি (যিনি এখন মৃত) এবং অনুব্রতার ঘনিষ্ঠ বন্ধু করিম খান সহ 15 জনের বিরুদ্ধে মঙ্গলকোট থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।  এর আগে বিষয়টি কাটোয়া আদালতে বিচারাধীন ছিল।  পরে সাংসদ বিধায়ককে আদালতে পাঠানো হয়।  25 আগস্ট বিধাননগর আদালতে অ-সম্মতি পরোয়ানা জারি করা হয়েছিল।  এরপর 1 সেপ্টেম্বর অনুব্রতসহ মোট 15 অভিযুক্ত আদালতে হাজির হন।  সাক্ষ্যপ্রমাণ যাচাইয়ের জন্য তাদের আজ আবার হাজির হতে বলা হয়েছিল।  সব কিছু খতিয়ে দেখে উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে অনুব্রতকে খালাস দেয় আদালত।


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad