কোন পুজো দেখবেন, কীভাবে যাবেন? চিন্তা কমিয়ে প্যাকেজ লঞ্চ পরিবহন দফতরের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 16 September 2022

কোন পুজো দেখবেন, কীভাবে যাবেন? চিন্তা কমিয়ে প্যাকেজ লঞ্চ পরিবহন দফতরের


'পূজা পরিক্রমা ২০২২' লঞ্চ করলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশীষ চক্রবর্তী। এর অধীনে, মানুষ ডাব্লুবিটিসি-র এসি এবং নন-এসি বাসে মহানগর সহ শহরতলির দুর্গা পূজায় ঘোরাফেরা করতে পারবেন। বৃহস্পতিবার এটি লঞ্চ করার পাশাপাশি এ প্রসঙ্গে পরিবহণ মন্ত্রী স্নেহাশীষ চক্রবর্তী বলেন, মুখ্যমন্ত্রী দুর্গা পূজাকে বিশ্বস্তরে নিয়ে গেছেন, তাই ইউনেস্কো একে হেরিটেজ তকমা দিয়েছে। 


তিনি বলেন, দুর্গা পুজো উপলক্ষে কলকাতা সহ রাজ্যের মানুষকে বাস পরিষেবা দেওয়ার জন্য পরিবহণ দফতরের পক্ষ থেকে একটি উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পূজা পরিক্রমা ঘোষণা করে মন্ত্রী বলেন, মানুষ বাসে করে কলকাতার বড় পূজা প্যান্ডেলগুলো দেখতে পারবে। সংবাদ সম্মেলনে WBTC-এর এমডি রাজনবীর সিং কাপুরও উপস্থিত ছিলেন।


কলকাতা থেকে শহরতলির জন্য এমনই ব্যবস্থা থাকবে-

* সপ্তমী এবং নবমীতে নন এসি বাস ছাড়বে, যা শহরের বিখ্যাত বারোয়ারি পূজা দেখাবে।

* যাত্রার শুরুর স্থান হবে হাওড়া স্টেশন সংযুক্ত সিটিসি টার্মিনাস, টালিগঞ্জ ট্রাম ডিপো, বারাসত কলোনি মোড়, মধ্যমগ্রাম, চৌমাথা, ডানলপ মোড় এবং ব্যারাকপুর থেকে, যেখানে ভাড়া হবে জনপ্রতি ৪০০ টাকা এবং হাওড়া ডিপো থেকে ভাড়া হবে জন প্রতি ৫০০ টাকা।

* দর্শনীয় পূজা স্থানগুলির মধ্যে হল একডালিয়া, সিংঘি পার্ক, বাদামাতলা আষাঢ় সংঘ, মুদিয়ালি, শিব মন্দির, কলেজ স্কোয়ার, বাগবাজার সার্বজনীন এবং বাগবাজার পল্লী রয়েছে।


বিলাসবহুল বাসে কলকাতা পূজা পরিক্রমা

* কলকাতার পুজো এসপ্ল্যানেড এবং বারাসত থেকে এসি এবং আরামদায়ক ভলভো বাসে ঘুরতে পারবে। বারাসত থেকে জনপ্রতি ভাড়া ১৮৫০ টাকা এবং এসপ্ল্যানেড থেকে ১৭৫০ টাকা হবে। সপ্তমী ও নবমীতে সকাল ৯টায় বাস ছাড়বে। বাসেই জলখাবার, চা, কফি ও দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করা হবে।

* যে দর্শনীয় স্থানগুলি পরিদর্শন করা হবে তার মধ্যে রয়েছে একডালিয়া, সিংঘি পার্ক, বাদমাতলা আষাঢ় সংঘ, মুদিয়ালি, শিব মন্দির, মো. আলী পার্ক, কলেজ স্কোয়ার, বাগবাজার সর্বজনীন ও বাগবাজার পল্লী।


বাসগুলো শহর থেকে দূরে গ্রামাঞ্চলে যাবে (ধান্যকুদিয়া ও আড়বালিয়া)

* কলকাতা থেকে ৭৫ কিমি বসিরহাট লাগোয়া দুটি গ্রামে বনেদি বাড়ির পুজোও দেখতে পাবেন।

* এসি বাসটি এসপ্ল্যানেড ট্রাম টার্মিনাস থেকে সকাল ৮টায় ছাড়বে এবং রাজারহাটের চিনার পার্ক থেকে সকাল ৮.৩০ টায় উঠতে পারবে। বাংলার গ্রামাঞ্চলের বিখ্যাত পুজো দেখা যায়। এই পরিষেবা সপ্তমী, অষ্টমী এবং নবমীতে চলবে এবং জনপ্রতি ভাড়া ১৮০০ টাকা হবে। একইভাবে কামারপুকুর জয়রামবাটির পূজা দর্শ‌নের জন্যও বাস চলবে। 


এছাড়াও ভেসেল দ্বারা পূজা ঘোরানোর ব্যবস্থাও রয়েছে। অনলাইন ছাড়া অফলাইনেও টিকিট পাওয়া যাবে। 

* দুপুরের খাবার মিলেনিয়াম পার্ক থেকে সকাল ১১ টায় রওনা হবে, এর পরে হাওড়া জেটি আহিরীটোলা ঘাটে পৌঁছাবে, যেখানে বিদ্যমান বাস থেকে পূজা প্যান্ডেলগুলি দেখা যাবে। পথে আহিরীটোলা সংলগ্ন প্যান্ডেল ছাড়াও শোভাবাজার রাজবাড়ি, কুমারটুলি পার্ক ও জগৎ মুখার্জি পার্কের পুজো রয়েছে।

* এই বিশেষ পরিষেবা সপ্তমী, অষ্টমী এবং নবমীতে পাওয়া যাবে। জনপ্রতি ভাড়া ৬০০ টাকা হবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad