৩০ ঘণ্টা ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থেকেও জীবিত রইল এই শিশুটি! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 23 September 2022

৩০ ঘণ্টা ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থেকেও জীবিত রইল এই শিশুটি!

 




একটি হিন্দি প্রবাদ আছে- জাকো রাখে সাইয়ান মার সাকে না কই। আসলে ঈশ্বর যাকে রক্ষা করেন তাকে আর কেউ হত্যা করতে পারে না।  এমন অনেক উদাহরণ আপনি নিশ্চয়ই দেখেছেন যখন মৃত্যু কাউকে স্পর্শ করেই চলে গেছে বা কোনো অসম্ভব পরিস্থিতিতে কেউ জীবন বাঁচিয়ে ফিরে এসেছে।  এমনই একটি ভিডিও এই মুহূর্তে ভাইরাল হচ্ছে, যেখানে ৪ তলা ভবন ধসে পড়ার ৩০ ঘণ্টা পর একটি ছোট্ট শিশুকে ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থেকে জীবিত অবস্থায় বের করে আনা হয়েছে।  ভূমিকম্প বা অন্য কোনো কারণে যদি পুরো বিল্ডিং কাঁপতে থাকে বা ভেঙে পড়তে শুরু করে, তাহলে বয়স্ক লোকেরা এখনও এখানে-সেখানে দৌড়ানোর চেষ্টা করে, তবে ছোট বাচ্চাদের পক্ষে তা সম্ভব নয়।  এমতাবস্থায় যদি একটি শিশুর জীবন বেঁচে যায় ৩০ ঘন্টা ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থাকার পরেও, তাহলে এটাকে অলৌকিক ঘটনা না বললে কী বলা হবে?


জর্ডানের আম্মানের জাবাল আল-ওয়েইবদেহতে একটি আবাসিক ভবন ধসে পড়েছে।  ৪ তলা ভবনটি ধসে পড়ার পর এই দুর্ঘটনায় মোট ১৪ জনের মৃত্যু হয়।  ঘটনার পরই উদ্ধার অভিযান শুরু করা হলেও ৩০ ঘণ্টা পর ধ্বংসস্তূপ থেকে ৪ মাস বয়সী শিশু মালাককে উদ্ধার করা হয়।  আশ্চর্যের বিষয় হলো, মেট্রো ইউকে-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ধুলো-ময়লা ছাড়া শিশুটির কোনো আঘাত লাগেনি।  তাকে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং সে সম্পূর্ণ সুস্থ।  এই ঘটনার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে।


মালাক নামের মেয়েটির মা তাকে একটি বন্ধুর সঙ্গে ভবনের বেসমেন্টে নামিয়ে দিয়েছিলেন কারণ সে নিজেই অর্ডার দিতে যাচ্ছিল।  তার চলে যাওয়ার পরপরই এই দুর্ঘটনা ঘটে।  বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বেসমেন্টে থাকায় শিশুটির জীবন বেঁচে গিয়েছে।  শিশুটির মা এএফপিকে বলেছেন যে তিনি তার সন্তানের বেঁচে থাকার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী।


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad