বৈধ নোটিশ ছাড়াই টাকা তুলছে স্কুল! ক্ষোভে ফুঁসছেন অভিভাবকেরা - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 22 September 2022

বৈধ নোটিশ ছাড়াই টাকা তুলছে স্কুল! ক্ষোভে ফুঁসছেন অভিভাবকেরা


রেজিস্ট্রেশনের নাম করে স্ট্যাম্প-সই ছাড়াই রশিদ দিয়ে বেআইনিভাবে পডুয়াদের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল স্কুলের বিরুদ্ধে, ক্ষোভ অভিভাবকদের। ঘটনা উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বাগদা থানার হেলেঞ্চা উচ্চ বিদ্যালয়ের। 


কোনও বৈধ নোটিশ ছাড়াই স্ট্যাম্প-সই বিহীন রশিদ দিয়ে রেজিস্ট্রেশনের নাম করে পডুয়াদের কাছ থেকে ৩০০ টাকা করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্কুলের বিরুদ্ধে৷ টাকা ফেরত দেওয়ার দাবী ক্ষুব্ধ অভিভাবকদের। তাদের অভিযোগ, স্কুলে ভর্তির সময় রেজিস্ট্রেশন বাবদ টাকা নিয়ে নেওয়া হয়েছে। ফের রেজিস্ট্রেশনের নাম করে টাকা তুলছে স্কুল৷ টাকা নেওয়ার বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়ে স্কুল কমিটির সভাপতির কাছে একটি লিখিত জমা দিয়েছেন পড়ুয়া ও অভিভাবকেরা৷


পড়ুয়া ও তাদের অভিভাবকেরা জানিয়েছেন, "একাদশ শ্রেণীতে স্কুলে ৩০০-র বেশি ছাত্রছাত্রী রয়েছে৷ সম্প্রতি তাদের দ্রুত রেজিস্ট্রেশন বাবদ ৩০০ টাকা দিতে বলা হয়, যদিও কী কারনে টাকা নেওয়া হচ্ছে, তার কোনও উল্লেখ নেই রশিদে৷ উল্লেখ নেই ডেট, সই বা স্ট্যাম্প কোনও কিছুই। 


এ বিষয়ে স্কুল কমিটির সভাপতি বলেন, "কোন মিটিং করে সিদ্ধান্ত না নিয়েই প্রধান শিক্ষক এই কাজটি করেছেন। আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের মাধ্যমে জেনে প্রধান শিক্ষককে প্রশ্ন করেছি। পড়ুয়ারা আমার কাছে লিখিতভাবেও জানিয়েছে বিষয়টি। 


ম্যানেজিং কমিটিকে আলোচনা না করেই হঠাৎ এত টাকা ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে নেওয়ার ঘটনা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন একাধিক শিক্ষকও৷ কী কারণে টাকা তোলা হল, তা নিয়ে প্রশ্ন করছেন তারা৷ এলাকার বেশিরভাগই গরীব মানুষ৷ অনেকের কাছে ৩০০ টাকা এক দিনের রোজগার৷ ইতিমধ্যেই টাকা ফেরতের দাবী জানিয়েছেন অভিভাবকেরা৷

  

প্রধান শিক্ষক বলেন, 'স্কুলের বেঞ্চি ভাঙ্গা পাখা খারাপ সহ প্রচুর সমস্যা রয়েছে। ডেভেলপমেন্টের জন্য এই টাকা নেওয়া হয়েছে। অন্য অনেক স্কুল আছে, যারা ৪-৫ হাজার টাকা নিয়ে নেয়। স্কুল কমিটির সদস্যদের মৌখিক ভাবে জানানো হয়েছিল৷'

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad