লক্ষ্মী-গণেশের পর এবারে টাকায় শিবাজি-আম্বেদকরের ছবি ছাপানোর দাবী - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 27 October 2022

লক্ষ্মী-গণেশের পর এবারে টাকায় শিবাজি-আম্বেদকরের ছবি ছাপানোর দাবী


দিল্লীর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল টাকায় লক্ষ্মী-গণেশের ছবি ছাপানোর আর্জি জানানোর পর থেকেই এই ইস্যুতে সরগরম রাজনীতি। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উঠে আসছে আরও নানারকম দাবী। এবারে টাকায়, ছত্রপতি শিবাজীর ছবি ছাপানোর দাবী জানিয়েছেন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) নেতা নীতেশ রানে। পাশাপাশি, এই তরজায় এন্ট্রি নিয়েছে হাত শিবিরও। কংগ্রেস নেতা মণীশ তেওয়ারি ডঃ আম্বেদকরের ছবি ছাপানোর দাবী জানিয়েছেন। 


কংগ্রেস নেতা, কেজরিওয়ালের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রশ্ন করেন, কেন নতুন সিরিজের নোটে আম্বেদকরের ছবি থাকবে না? তিনি পরামর্শ দিয়েছেন যে, 'নোটের একদিকে জাতির পিতা মহাত্মা গান্ধীর ছবি এবং অন্যদিকে সংবিধানের স্থপতি বাবাসাহেব ভীম রাও আম্বেদকরের ছবি থাকা উচিৎ।'


মনীশ তেওয়ারি ট্যুইট করেছেন, "নতুন সিরিজের নোটে ডক্টর বাবাসাহেব আম্বেদকরের ছবি নেই কেন? একদিকে মহান মহাত্মা গান্ধী এবং অন্যদিকে ডক্টর আম্বেদকর; অহিংসা, সাংবিধানিকতা এবং সমতাবাদের এক অনন্য সমন্বয় যা আধুনিক ভারতীয় প্রতিভা প্রদর্শন করবে।"

 

অপরদিকে বিজেপি নেতা, নোটে ছত্রপতি শিবাজির ছবি ছাপানোর দাবীর পাশাপাশি, ২০০ টাকার নোটের একটি ফটোশপ ছবিও পোস্ট করেছেন। কনকাভলি বিধায়ক নীতীশ রানে ছবিটি ট্যুইট করে লিখেছেন, "এটি পারফেক্ট।"

 


গুজরাট নির্বাচনকে সামনে রেখে হিন্দুত্বের কার্ড খেলেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি ভারতীয় টাকায় দেবী লক্ষ্মী ও ভগবান গণেশের ছবি ছাপানোর আবেদন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে। তিনি যুক্তি দিয়েছেন যে, এটি অর্থনীতিকে শক্তিশালী করার একটি উপায় হতে পারে। তিনি আরও দাবী করেছেন যে,এটি ডলারের বিপরীতে রুপির অবমূল্যায়ন রোধ করতেও সাহায্য করতে পারে।


এদিকে বিজেপির তরফে ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে এই নিয়ে। আপ প্রধানকে কড়া আক্রমণ করেছেন দলের বরিষ্ঠ নেতারা। বিজেপি বলেছে যে, কেজরিওয়াল তার সরকারের ত্রুটি এবং আম আদমি পার্টির হিন্দু বিরোধী মানসিকতা থেকে মানুষের মনোযোগ সরাতে রাজনৈতিক নাটক করছেন।


বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্র বলেছেন, "কেজরিওয়াল তার প্রেস কনফারেন্সে যা বলেছেন, তা তার ইউ-টার্ন রাজনীতির আরেকটি সম্প্রসারণ। তার ভণ্ডামি দৃশ্যমান।" পাশাপাশি, বিজেপি সাংসদ মনোজ তিওয়ারি বলেছেন যে, আপ হিন্দু দেব-দেবীদের সাথে দুর্ব্যবহার করেছিল, কিন্তু এখন তারা নির্বাচনের আগে মুখ বাঁচানোর চেষ্টা করছে। তিনি বলেন, 'যারা রাম মন্দিরের বিরোধিতা করেছিল তারা নতুন মুখোশ নিয়ে এসেছে।'


বরিষ্ঠ বিজেপি নেতা শাহনওয়াজ হুসেন অভিযোগ করেছেন যে, অরবিন্দ কেজরিওয়াল মহাত্মা গান্ধীকে সাইডলাইন করার চেষ্টা করছেন। বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যও ট্যুইটারে তাকে হিন্দু-বিরোধী মৌলবাদী বলেছেন।


এর আগে দিল্লীতে বিধানসভা নির্বাচনের আগে একটি টেলিভিশন সাক্ষাত্কারের সময় কেজরিওয়াল যখন হনুমান চালিসা পাঠ করেছিলেন, তখন বিজেপি তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিল। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেছিলেন, "এই মুহূর্তে শুধুমাত্র কেজরিওয়াল হনুমান চালিসা পাঠ শুরু করেছেন। অপেক্ষা করুন, আপনিও একদিন ওয়াইসিকে হনুমান চালিসা পাঠ করতে শুনবেন।"

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad