মৃতের সঙ্গে মানিক জায়ার অ্যাকাউন্টে ৩ কোটি, জেল হেফাজতেই প্রাক্তন পর্ষদ সভাপতি - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 25 October 2022

মৃতের সঙ্গে মানিক জায়ার অ্যাকাউন্টে ৩ কোটি, জেল হেফাজতেই প্রাক্তন পর্ষদ সভাপতি


প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ কেলেঙ্কারি মামলায় গ্রেফতার তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন বিধায়ক ও প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মানিক ভট্টাচার্যকে মঙ্গলবার আদালতে পেশ করা হয়েছে। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের দাবীকে মান্যতা দিয়ে মানিক ভট্টাচার্যের ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ঐদিন তাঁকে পিএমএলএ আদালতে পেশ করতে হবে।  


এদিন আদালতে ইডি-র কৌঁসুলি অভিযোগ করেন, মৃত ব্যক্তির সঙ্গে মানিক ভট্টাচার্যের স্ত্রীর একটি যৌথ অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেই অ্যাকাউন্টে ৩ কোটি টাকা রয়েছে। বিধায়ক মানিক ভট্টাচার্যের ছেলের বিরুদ্ধে বেআইনি টাকা তোলার অভিযোগ ওঠার পর এবার ইডি, তাঁর স্ত্রীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টেও কারচুপির অভিযোগ আনল। মঙ্গলবার আদালতে এই তথ্য দেন ইডি-র আইনজীবী।


ইডি আদালতকে জানিয়েছে, যার সঙ্গে মানিক ভট্টাচার্যের স্ত্রীর ব্যাঙ্কে যৌথ অ্যাকাউন্ট রয়েছে, তিনি মৃত্যুঞ্জয় চক্রবর্তী। তিনি ২০১৬ সালে মারা যান, কিন্তু এখনও অ্যাকাউন্ট থেকে তার নাম মুছে ফেলা হয়নি বরং ওই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কয়েক কোটি টাকা রয়েছে, যা ইডি-র আইনজীবীর মতে অবৈধ হতে পারে।


টেট কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত মানিককে মঙ্গলবার আদালতে পেশ করা হয়। সেখানে মানিকের স্ত্রীর বিষয়ে ইডির দেওয়া তথ্য শুনে আদালত মানিক ভট্টাচার্যকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে। উল্লেখ্য, সম্প্রতি, মানিক ভট্টাচার্যের ছেলে সৌভিক ভট্টাচার্যের বিরুদ্ধে রাজ্যের বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে অবৈধভাবে টাকা তোলার অভিযোগ করেছে ইডি। 


প্রসঙ্গত, প্রাথমিক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার অভিযুক্ত মানিক ভট্টাচার্যকে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ইডি গ্রেফতার করেছিল। ইডির এই পদক্ষেপের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে, মানিক ভট্টাচার্য সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিলেন, কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট বৃহস্পতিবার মানিকের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে এবং প্রাথমিক শিক্ষা বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মানিক ভট্টাচার্যকে তদন্তের জন্য ইডি হেফাজতেই রাখার নির্দেশ দিয়েছে। এরপর থেকে মানিক ভট্টাচার্য মঙ্গলবার পর্যন্ত ইডি-র হেফাজতে ছিলেন। ইডি মঙ্গলবার আরও তদন্তের জন্য মানিক ভট্টাচার্যের রিমান্ড চেয়েছিল। কিন্তু আদালত তাকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।


 মানিক ভট্টাচার্যের নামে বহু বেনামি সম্পত্তি পাওয়া গেছে বলে ইডির অভিযোগ। এমনকি কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা আদালতকে বলেছে যে, নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে তাঁর ছেলে সৌভিকের নামে বিপুল সম্পত্তি পাওয়া গেছে। ইডির তরফে এও বলা হয়, মানিকের ছেলের সংগঠন রাজ্যের ৫৩০টি বেসরকারি বিএড এবং ডিএড কলেজ থেকে ৫০,০০০ টাকা নিয়েছে। এবারে নিয়ম না মেনে মানিকের স্ত্রীর অ্যাকাউন্টে কোটি কোটি টাকা রাখা হয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad