অল্পবয়সী ছেলেদের চুল পড়া রোধে কার্যকরী কিছু টিপস - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Monday, 7 November 2022

অল্পবয়সী ছেলেদের চুল পড়া রোধে কার্যকরী কিছু টিপস


আজকাল শুধু নারীরাই নয় পুরুষরাও চুল পড়ার সমস্যায় ভুগছেন। শরীরে পুষ্টির অভাব, চুলের সঠিক যত্ন নিতে না পারা, হরমোনের পরিবর্তন, মানসিক চাপ, দূষণ, জেনেটিক্স এবং ওষুধের অতিরিক্ত সেবন পুরুষদের চুল পড়ার প্রধান কারণ।  আগে পুরুষদের বয়স বাড়ার সাথে সাথে চুল পড়া হত, কিন্তু আজকাল ছোট ছেলেরাও চুল পড়া নিয়ে সমস্যায় পড়ে।  এমন পরিস্থিতিতে চুল পড়া রোধে চুলের বাড়তি যত্ন নেওয়া খুবই জরুরি।  এ ছাড়া চুল মজবুত করতে সঠিক খাদ্যাভ্যাস বা খাদ্যাভ্যাস, তেল মাখাও প্রয়োজন।  আপনিও যদি অল্প বয়সে চুল পড়ার সমস্যায় ভুগে থাকেন, তাহলে এখানে উল্লেখ করা কিছু টিপস অনুসরণ করতে পারেন।  এতে আপনার চুল মজবুত হবে এবং চুল পড়াও বন্ধ হবে।

কিভাবে চুল পড়া বন্ধ করবেন?  

চুল পড়া সারা বিশ্বের অন্যতম সাধারণ সমস্যা।  নারীদের পাশাপাশি কমবয়সী পুরুষরাও চুল পড়ার সমস্যায় ভুগে থাকেন।  দীর্ঘক্ষণ টুপি বা হেলমেট পরাও চুল পড়ার কারণ হতে পারে।  চুল পড়া রোধে মেনে চলুন এই টিপস-

হালকা শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন

নিয়মিত চুল ধোয়া চুল পড়া রোধ করতে পারে।  এটি চুল এবং মাথার ত্বক পরিষ্কার করে, যার ফলে চুল পড়া রোধ করে।  চুল ধোয়ার জন্য হালকা শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন।  চুল ধোয়া সংক্রমণ এবং খুশকির ঝুঁকিও কমায়।  এটি চুল ভাঙ্গা রোধ করে এবং এটি শক্তিশালী করে।

ভিটামিন

চুল পড়া রোধেও ভিটামিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  ভিটামিন স্বাস্থ্যের পাশাপাশি চুলের জন্যও ভালো।  ভিটামিন এ, ভিটামিন ই এবং ভিটামিন বি চুলের জন্য অপরিহার্য।  ভিটামিন এ মাথার ত্বকে স্বাস্থ্যকর সিবামের উৎপাদনকে উৎসাহিত করে।  ভিটামিন ই মাথার ত্বকে রক্ত ​​সঞ্চালন উন্নত করে এবং ভিটামিন বি স্বাস্থ্যকর চুলের রঙ বজায় রাখতে সাহায্য করে।

চুলের জন্যও প্রোটিন প্রয়োজনীয় 

নিজেকে সুস্থ রাখতে যেমন প্রোটিন প্রয়োজন, ঠিক তেমনি চুল মজবুত করতেও প্রোটিনের প্রয়োজন।  যদি আপনার চুল পড়ে থাকে, তাহলে এই প্রোটিনটি আপনার ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন।  এ জন্য খাদ্যতালিকায় মাছ, সয়া পণ্য, দুধ যোগ করা যেতে পারে।

তেল 

চুল মজবুত করতে, চুল পড়া রোধ করতেও ম্যাসাজ খুবই জরুরি।  মাথায় তেল মালিশ করতে হবে।  তেল লোমকূপ সক্রিয় রাখতে সাহায্য করে।  চুলের গোড়া মজবুত করতে বাদাম, তিল, ল্যাভেন্ডার তেল ব্যবহার করতে পারেন।

 ভেজা চুল ব্রাশ করা এড়িয়ে চলুন

অল্প বয়সে চুল পড়ে যায়, তাই ভেজা চুলে ব্রাশ করা এড়িয়ে চলুন। ভেজা চুলে ব্রাশ করলে চুল দুর্বল হয়ে যায়।  ভেজা চুলে ব্রাশ করলেও চুল পড়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।  চুল নিরাপদ রাখতে চুল আঁচড়াতে হবে শুধু। এর জন্য আপনি একটি চওড়া দাঁতযুক্ত চিরুনি ব্যবহার করতে পারেন।  এভাবে চুল সবসময় সুস্থ থাকবে।


পেঁয়াজের রস উপকারী

চুল মজবুত করতেও পেঁয়াজের রস উপকারী।  এর জন্য রসুন, পেঁয়াজ ও আদার রস বের করে নিন।  এবার এটি আপনার মাথার ত্বকে ঘষুন।  সারারাত এভাবে চুল রেখে সকালে চুল ধুয়ে ফেলুন।  এভাবে কয়েকদিন একটানা করলে চুল মজবুত হয় এবং ভাঙা এড়ায়।


 নিজেকে হাইড্রেটেড রাখুন

চুল মজবুত করতে নিজেকে হাইড্রেটেড রাখাও খুব জরুরি।  চুল নরম করতে জল প্রয়োজন।  হাইড্রেটেড থাকতে এবং চুল সুস্থ রাখতে, দিনে অন্তত 8-10 গ্লাস জল পান করা অপরিহার্য।  হাইড্রেটেড থাকার জন্য আপনি কিছু অন্যান্য তরলও খেতে পারেন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad