শীতকালে ত্বকে শুষ্কতা প্রতিরোধে অনুসরণ করুন এই টিপসগুলো - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Monday, 7 November 2022

শীতকালে ত্বকে শুষ্কতা প্রতিরোধে অনুসরণ করুন এই টিপসগুলো


ঠান্ডার মৌসুমে আর্দ্রতার অভাবে ত্বকে শুষ্কতা দেখা দিতে পারে। আর্দ্রতার অভাবে শুষ্ক ত্বককে রক্ষা করতে আপনার ত্বককে হাইড্রেটেড রাখতে হবে। ঠান্ডার দিনে ত্বককে হাইড্রেট রাখতে আপনার তরল পান করা, ক্রিম বা লোশন ব্যবহার করা উচিৎ।  আরও কিছু পদ্ধতি আছে যার মাধ্যমে আপনি ঠান্ডার দিনে আপনার ত্বককে শুষ্কতা থেকে রক্ষা করতে পারেন। 

 1. শীতকালে অতিরিক্ত গরম বা হিটার ব্যবহার এড়িয়ে চলুন

আপনি যদি ঘরে বেশি হিটার বা ওয়ার্মার ব্যবহার করেন তবে আপনার ত্বকে শুষ্কতার লক্ষণ দেখা যায়, আপনি যদি আপনার ত্বককে শুষ্কতা থেকে বাঁচাতে চান তবে ঘরে হিটার বা ওয়ার্মার ব্যবহার না করে সাধারণ জায়গায় হিটার এবং ওয়ার্মার ব্যবহার করুন। যেখানে আপনার গরম করার যন্ত্রটি দিনে মাত্র কয়েক ঘন্টা ব্যবহার করা উচিৎ।  হিটারের কারণে হাতে-পায়ে আর্দ্রতার অভাবও দেখা দেয়, যা এড়িয়ে চলা উচিৎ।

 2. শীতকালে সানগ্লাস, ক্যাপ, মাফলার ব্যবহার করুন

 ঠান্ডার দিনে ত্বককে শুষ্কতার সমস্যা থেকে বাঁচাতে ক্যাপ, মাফলার, চশমা ব্যবহার করা উচিৎ।  ঠান্ডার কারণে চোখ থেকে আর্দ্রতাও চলে যায় এবং চোখে শুষ্কতার সমস্যা হতে পারে, যা এড়াতে আপনার চোখকে ঠান্ডা বাতাস থেকে রক্ষা করতে সানগ্লাস ব্যবহার করা উচিৎ।  অন্যদিকে, গাড়ি চালানোর সময় যদি মাফলার দিয়ে মুখ ঢেকে রাখতে পারেন, তাহলে ত্বকে শুষ্কতার সমস্যা থাকবে না, যদিও কারো কারো পশমী কাপড়ে অ্যালার্জি থাকে, তাই প্রয়োজন না হলে ঠান্ডায় বাইরে যাওয়া এড়িয়ে চলুন।


 3. শুষ্কতা এড়াতে শীতকালে স্বাস্থ্যকর খাদ্য গ্রহণ করুন

শুষ্কতার সমস্যা থেকে ত্বককে রক্ষা করতে হলে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে হবে।  স্বাস্থ্যকর খাবারে আপনি ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করতে পারেন।  গাজর, মুলা, সবুজ শাকসবজি শীতকালে ত্বকের জন্য উপকারী বলে মনে করা হয়।  আপনার খাদ্যের 60 শতাংশে তাজা ফল এবং সবজি অন্তর্ভুক্ত করা উচিৎ।  এর পাশাপাশি ত্বক পরিষ্কার রাখাও জরুরি, শুষ্ক ত্বকেও ঠান্ডার দিনে ব্রণ ও ফুসকুড়ি হয়, যা এড়াতে আপনার ত্বককে অবশ্যই ফেসওয়াশ, ফেসিয়াল ওয়াইপস, কাঁচা দুধের সাহায্যে প্রাকৃতিক ক্লিনজার দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। করছেন


4. শীতকালে ত্বককে শুষ্কতা থেকে রক্ষা করতে হাইড্রেটেড থাকুন

 শীতকালে আর্দ্রতার অভাবের কারণে আপনার ত্বকে শুষ্কতার সমস্যা হতে পারে, যা এড়াতে আপনার ত্বককে হাইড্রেটেড রাখতে হবে।  ত্বককে হাইড্রেটেড রাখতে পর্যাপ্ত জল পান করা জরুরি।  আপনার প্রতিদিন কমপক্ষে 2 থেকে 3 লিটার জল পান করা উচিৎ।  ত্বকের জন্য নারকেল জল খাওয়া, গ্রিন টিও উপকারী, এগুলোও খেতে পারেন।

5. শীতকালে লোশন ব্যবহার করা

 অনেকেই শীতে ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন না, যার কারণে তাদের ত্বকে শুষ্কতার সমস্যা দেখা দেয়।  ঠান্ডার দিনে আপনার ত্বকে লোশন ব্যবহার করা উচিৎ।  বাড়িতে কীভাবে ক্রিম তৈরি করবেন তা জেনে আপনিও এটি প্রাকৃতিকভাবে তৈরি করতে পারেন।  প্রাকৃতিক পণ্য ব্যবহার করে, ত্বক হাইড্রেটেড থাকে এবং আপনার ত্বকে কোনও ধরণের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad