গভীর রাতে চটুল নাচের আসর! বিজেপির নিশানায় তৃণমূল - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 28 December 2022

গভীর রাতে চটুল নাচের আসর! বিজেপির নিশানায় তৃণমূল


স্বল্পবসনা নর্তকীদের নিয়ে চটুল নাচের আসর। শাসকদলের মদতেই হচ্ছে এই আসর, অভিযোগ বিজেপির। গ্রামে গ্রামে আবাস যোজনায় দুর্নীতি নিয়ে ক্রমশ ক্ষোভ বাড়ছে সাধারণ মানুষের। সেই বিক্ষোভ থেকে নজর ঘোরাতেই এই ধরনের চটুল নাচের আসর বসাচ্ছে তৃণমূল, অভিযোগ বিজেপির। বিজেপির কাজ শুধু মিথ্যা কথা বলা, পুলিশ জানা মাত্র সেখানে গিয়ে অনুষ্ঠান বন্ধ করেছে পাল্টা সাফাই তৃণমূলের। চটুল নাচের আসরকে কেন্দ্র করে তুঙ্গে রাজনৈতিক তরজা। ঘটনাস্থল মালদা। 


মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর থানার অন্তর্গত কনুয়ার ভবানীপুর গ্রামে মঙ্গলবার গভীর রাতে বসে চটুল নাচের আসর। মঞ্চে দেখা যায় অশ্লীল গানে উদোম নাচ স্বল্পবসনা নর্তকীদের। ভিড় জমায় এলাকার বহু মানুষ। এলাকার সংস্কৃতিমনস্ক মানুষের অভিযোগ, এর ফলে এলাকার সংস্কৃতি নষ্ট হচ্ছে। বিরূপ প্রভাব পড়ছে যুব সমাজের ওপর। এই চটুল নাচের আসরকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। 


বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূলের মদতেই এই সব আসর হচ্ছে। হরিশ্চন্দ্রপুর এলাকা জুড়ে প্রত্যেক দিন আবাস যোজনায় দুর্নীতিকে কেন্দ্র করে ক্ষোভ বাড়ছে মানুষের মধ্যে। তাই নজর ঘোরাতে চটুল নাচের আসর করছে তৃণমূল। তৃণমূল মানেই অপসংস্কৃতি, খোঁচা বিজেপির। পাল্টা তৃণমূলের দাবী, এর সঙ্গে তাদের কোনও যোগ নেই। পুলিশ খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে এসব বন্ধ করেছে। বিজেপির কাজ মিথ্যাচার করা। আবাস যোজনাতে কোনও রকম দুর্নীতি হয়নি। 


উত্তর মালদা জেলা বিজেপির সাংগঠনিক সম্পাদক রূপেশ আগরওয়াল বলেন, 'তৃণমূল মানে অপসংস্কৃতি। আবাস যোজনায় চারিদিকে দুর্নীতি এবং স্বজন পোষণ করেছে তৃণমূল। গরীব মানুষেরা ঘর পায়নি, তাই তারা বিক্ষোভ করছে। প্রত্যেকদিন এই নিয়ে খবর হচ্ছে। তাই সেখান থেকে নজর ঘোরাতে চটুল নাচের আসর করছে তৃণমূল।'


হরিশ্চন্দ্রপুর তৃণমূল কংগ্রেসের চেয়ারম্যান সঞ্জীব গুপ্তা বলেন, 'যোগ্যরা যাতে ঘর পায়, সেই জন্য সব সময় চেষ্টা করছে রাজ্য সরকার। প্রশাসন সমীক্ষা করে তালিকা প্রস্তুত করছে। বিজেপি কেন্দ্রে ক্ষমতায় থেকেও মানুষকে দ্রব্য-মূল্য বৃদ্ধি ছাড়া আর কিছু দিতে পারেনি। নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে এই ধরনের মিথ্যাচার করে।'


প্রসঙ্গত, আবাস যোজনার চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করার পর থেকে প্রত্যেকদিন দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ। দুর্নীতি এবং স্বজন-পোষণের অভিযোগে কাঠগড়ায় রাজ্যের শাসকদল। সেই ইস্যুকেই ভোটের প্রাক্কালে হাতিয়ার করতে চাইছে বিরোধীরা। বিরোধীদের আক্রমণ সামলে মানুষের ক্ষোভ প্রশমন এই মুহূর্তে শাসকদলের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ বলে মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad