ঠান্ডার প্রকোপ আপনার স্বাস্থ্য নষ্ট করবে! এড়াতে এই পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করুন - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 3 January 2023

ঠান্ডার প্রকোপ আপনার স্বাস্থ্য নষ্ট করবে! এড়াতে এই পদ্ধতিগুলি অনুসরণ করুন

 



 শীত যতই বাড়ছে, সর্দি, কাশি, জ্বরের মতো রোগও বাড়ছে। আজকাল রোগ এড়ানো কঠিন। কিছু সহজ টিপস অনুসরণ করে আমরা রোগ থেকে বাঁচতে পারি। 


 ঠাণ্ডা বাতাস সর্বনাশ শুরু করেছে। আজকাল প্রচন্ড শীত পড়ছে। এই প্রচণ্ড ঠান্ডা স্বাস্থ্য নষ্ট করতে পারে। এ ধরনের আবহাওয়ায় শরীরে রোগ দ্রুত ধরতে পারে। ঠান্ডার কারণে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে পড়ে। এই ঋতুতে আপনি যদি রোগ থেকে বাঁচতে চান, তাহলে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা জরুরি। কিছু টিপস অবলম্বন করলে আমরা ঠান্ডা ও রোগ থেকে বাঁচতে পারি।


গরম কাপড়


গরম কাপড় শরীরকে ঠান্ডা থেকে রক্ষা করে। অল্প জামাকাপড় এখন চলবে না, ঠাণ্ডা থেকে বাঁচতে চাইলে কাপড়ের লেয়ারিং করুন। আপনার মাথায় একটি টুপি, আপনার হাতে এবং পায়ে মোজা, একটি স্কার্ফ এবং ভিতরে তাপীয় পোশাক রাখুন। উপরে একটি মোটা জ্যাকেট বা সোয়েটার পরুন। এসব পোশাক শরীরকে ঠান্ডা ও রোগবালাই থেকে রক্ষা করবে। 


ভেতর থেকে শরীর গরম করা


বাইরে থেকে কাপড় দিয়ে ঢেকে শরীর গরম করা যায়, তবে শীতে রোগবালাই এড়াতে হলে ভেতর থেকে শরীর গরম করা দরকার। গরম প্রভাবে জিনিস খান। খাবারে স্যুপের মতো জিনিস রাখুন। ফ্রিজে রাখা জিনিস খাওয়া এড়িয়ে চলুন।


ঘর গরম রাখুন


শীতেও অনেকে এসি ও কুলার চালিয়ে ঘুমান। এ কারণে শরীরে ঠান্ডা বসতে পারে। এসির তাপমাত্রা বজায় রাখুন। ঘরের জানালা-দরজা বন্ধ রাখুন যাতে বাতাস ঘরে ঢুকতে না পারে। ঘরে বসে ঠান্ডা বাতাসও মেঝে ঠান্ডা করতে পারে, তাই বসার আগে মেঝেতে কাপড় বা মাদুর বিছিয়ে দিন।  


ঠান্ডা জল এড়িয়ে চলুন


শীতকালে জলে ভেজা ঠিক নয়। জল থেকে দূরে থাকুন। ঠান্ডা জল ব্যবহার করবেন না। গরম পানি দিয়ে স্নান করে সব কাজ সেরে ফেলুন। চুল ভেজা থাকার কারণে তাড়াতাড়ি ঠান্ডা লেগে যেতে পারে, তাই চুল বেশি ধোয়া যাবে না। শরীর ঠিকমতো শুকানোর পর কাপড় পরুন।


জলপান করা


শীতকালে আমরা কম জল পান করি যার কারণে শরীরে জলের অভাব হতে পারে। রোগ এড়াতে চাইলে জল পান করা প্রয়োজন। ভালো পরিমাণে জল পান করুন। কিছু ফলের রস আপনার ডায়েটের অংশ করে শরীরে জল পূরণ করুন।


বি.দ্র: এখানে দেওয়া তথ্য সাধারণ জ্ঞানের ওপর ভিত্তি করে লেখা- নতুন যে কোনও কিছু ট্রাই করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ অবশ্যই নিন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad