তুলসী ক্বাথ পানের বহু স্বাস্থ্যগুণ - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 24 January 2023

তুলসী ক্বাথ পানের বহু স্বাস্থ্যগুণ

 







শীতে সর্দি-কাশির মতো সমস্যা মানুষকে বিরক্ত করতে শুরু করে। এমন পরিস্থিতিতে আবহাওয়া গরম হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যদি কফের সঙ্গে কাশি আপনাকে বিরক্ত করে তবে এই তুলসীর ক্বাথ আপনার সমস্যা দ্রুত কমাতে পারে । ঔষধি গুণে ভরপুর তুলসী আয়ুর্বেদে নানাভাবে ব্যবহৃত হয়।  



তুলসীতে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ রয়েছে, যা পেট সংক্রান্ত সমস্যা যেমন বদহজম, বুকজ্বালা এবং অ্যাসিডিটির ধরনের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।   আসুন জেনে নিই কফ ও কাশি দূর করতে তুলসীর ক্বাথ কীভাবে তৈরি করবেন।



তুলসীর ক্বাথ: 


তুলসীর ক্বাথ তৈরি করতে প্রথমে একটি প্যানে দুই গ্লাস জল দিয়ে তাতে তুলসী, দারুচিনি গুঁড়া, কালো গোলমরিচ, আদা সব কিছু মিশিয়ে নিন। এটি ১৫ মিনিটের জন্য ফুটতে দিন। তারপর ক্বাথটি কয়েক মিনিটের জন্য ঠান্ডা হতে দিন। এবার ছেঁকে পান করুন।  স্বাদের জন্য আপনি এতে কিছু গুড়, মধু বা লেবুর রসও যোগ করতে পারেন। প্রতিদিন এই ক্বাথ সেবন করলে গলার প্রদাহ নিরাময় হয়, গলা ব্যথা উপশম হয়, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী হয়।



কাশি সারাতেও উপকারী এই জিনিসগুলো:


মধু, কিসমিস ও কিশমিশ একসঙ্গে খেলে কাশি ভালো হয়। ত্রিফলা সমপরিমাণ মধুর সঙ্গে মিশিয়ে পান করলে কাশিতে সাহায্য করে। তুলসী, গোলমরিচ ও আদা চা পান করলেও কফ দূর হয়। হিং, ত্রিফলা, মদ ও চিনি দিয়ে লেবুর রস চাটলেও কাশিতে উপকার পাওয়া যায়।



তুলসীর ক্বাথ পানের উপকারিতা:


তুলসীর এই ক্বাথ ঠাণ্ডা ও গলা ব্যথা সারাতে সহায়ক।  এটিতে ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাল সমস্যাগুলির সঙ্গে লড়াই করার সম্পত্তি রয়েছে। এ ছাড়া তুলসী ও আদা দিয়ে তৈরি ক্বাথ পান করলে শরীরের আরও অনেক উপকার হয়। এই তুলসীর ক্বাথ খেলে চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। এটি খেলে শরীরের বিষাক্ত উপাদান শরীর থেকে বের হয়ে যায়। তুলসীর ক্বাথ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad