বছরের পুরনো সম্পত্তির বিবাদ থেকে মুক্তি পাবেন অবিলম্বে, দান করুন এই জিনিসগুলো - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Thursday, 19 January 2023

বছরের পুরনো সম্পত্তির বিবাদ থেকে মুক্তি পাবেন অবিলম্বে, দান করুন এই জিনিসগুলো

 


 জ্যোতিষশাস্ত্রে অনেক সমস্যা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। পরিবারে সম্পত্তির বিরোধের কারণে কেউ কেউ বছরের পর বছর অস্থির থাকেন। এই পরিস্থিতিতে, আপনি এই ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন।  


সম্পত্তির বিরোধের সমস্যা: আপনি যদি বছরের পর বছর ধরে সম্পত্তির বিবাদে সমস্যায় পড়ে থাকেন, তাহলে তা থেকে মুক্তি পেতে এই ব্যবস্থাগুলো করতে পারেন। জ্যোতিষশাস্ত্রে এমন অনেক ব্যবস্থার কথা বলা হয়েছে। যাঁরা সম্পত্তি নিয়ে বিবাদে ভুগছেন, তাঁরা তিল ও শুকনো ফল মিশিয়ে গুড়ের তৈরি লাড্ডু দান করুন। এই প্রতিকার করলে আপনার সম্পত্তি সংক্রান্ত বিবাদের অবসান হতে পারে। আপনি যদি এই জিনিসগুলি দান করেন তবে আপনার জীবনেও সুখ এবং সমৃদ্ধি বৃদ্ধি পাবে। এ জন্য রবিবার মা গরুকে গুড় খাওয়াতে পারেন।   


গরুকে গুড় খাওয়ান 


হিন্দু ধর্মে গরুর সেবা করাকে শুভ বলে মনে করা হয়। যাঁরা জমি সংক্রান্ত বিবাদ মীমাংসা করতে চান, তাঁদের প্রতি রবিবার গরুকে গুড় খাওয়াতে হবে। এর জন্য আপনাকে অবশ্যই গৌশালায় যেতে হবে এবং সেখানে লাল গরুকে গুড় খাওয়াতে হবে। গরুকে গুড় খাওয়ানোর সময় একটা কথা মনে রাখবেন গরুকে গুড় ফেলবেন না। গরুর কাছে যেতে ভয় পেলে কোনো জায়গায় গুড় রেখে তারপর খাওয়ান।   


খাদ্য দান করুন


সনাতন ধর্মে বিশ্বাস করা হয় যে দান করে সে পুণ্য পায়। এ ছাড়া পাপ থেকেও মুক্তি পায়। এমতাবস্থায়, আপনার জায়গায়ও যদি জমি সংক্রান্ত বিবাদ চলছে এবং আপনি তা থেকে মুক্তি পেতে চান, তাহলে খাদ্য দান করুন। শাস্ত্রে বিশ্বাস করা হয় যে শুক্রবার আপনি যদি কোনও গরীব বা অভাবী ব্যক্তিকে খাবার দান করেন তবে আপনি তাদের আশীর্বাদ পাবেন। এতে ভোগান্তি অনেকাংশে কমানো যায়। 


 মা দুর্গা 


আপনার পরিবারের কেউ যদি জমি কেনা বা বিক্রি করতে সমস্যায় পড়েন বা এই সংক্রান্ত সমস্যার সম্মুখীন হন, তাহলে আপনার মা দুর্গার পূজা করা উচিৎ । যদি মা দুর্গা প্রসন্ন হন, তবে তাঁর আশীর্বাদ আপনার উপর থাকবে। যাঁরা সম্পত্তি নিয়ে বিবাদে ভুগছেন তাঁদের মা দুর্গার মন্ত্র জপ করা উচিৎ । মায়ের সামনে আপনার সমস্যার কথা বলুন। এভাবে জমি সংক্রান্ত বিরোধ মিটে যাবে। 


বি.দ্র: এখানে দেওয়া তথ্য প্রচলিত বিশ্বাস ও মান্যতার ওপর ভিত্তি করে লেখা। প্রেসকার্ড নিউজ এটি নিশ্চিত করে না।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad