আয়ের ভালো উৎস হতে পারে আরশোলা চাষ! - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 6 May 2023

আয়ের ভালো উৎস হতে পারে আরশোলা চাষ!



আয়ের ভালো উৎস হতে পারে আরশোলা চাষ!


রিয়া ঘোষ, ০৬ মে : আমাদের দেশে আরশোলা দেখলে মানুষ উত্তেজিত হয়।  এমনকি অনেকে এই ভয়ে পালাতে শুরু করে।  বাড়ি, দোকানপাটসহ সব জায়গায় সহজেই পাওয়া যায় এই প্রাণীগুলো।  সাধারণত মানুষ তাদের তাড়ানোর জন্য স্প্রে এবং ওষুধ ব্যবহার করে।  এটা বিশ্বাস করা হয় যে আরশোলা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো নয়।  এতে অনেকের অ্যালার্জিও হয়। এখন পর্যন্ত আপনি নিশ্চয়ই আরশোলার ক্ষতির কথাই শুনেছেন।  কিন্তু জানেন কি আরশোলা চাষ করে বিদেশের অনেকেই ধনী হয়েছে। 


 চীনে আবর্জনা দূর করতে আরশোলা ব্যবহার করা হয়


 বিশ্বে প্রযুক্তির কথা বললে জাপানের পরেই আসে চীন।  এই দেশ অনেক আধুনিক।  হাই-টেক প্রযুক্তির কারণে, চীনে প্রচুর পরিমাণে আবর্জনাও তৈরি হয়।  কিছু রিপোর্ট অনুযায়ী, চীনে প্রায় ৬০ মিলিয়ন টন বর্জ্য উৎপন্ন হয়।  যার কারণে মানুষের শরীরে ছড়িয়ে পড়ছে নানা বিপজ্জনক রোগ।  এসব বর্জ্য দূর করতে চীনে আরশোলা ব্যবহার করা হয়।


 কিভাবে আরশোলা পালন করা যায়


 আরশোলা লালন-পালনের জন্য মানুষকে বেশি পরিশ্রম করতে হয় না। যদি চীনের কথা বলি, তাহলে সেখানে ছোট থেকে বড় পর্যায়ে অনুসরণ করা হয়।  এ জন্য সেখানে অনেক কারখানাও গড়ে উঠেছে।  আরশোলা পালনে কাঠের বার্ডের প্রয়োজন হয়।  আসলে, আরশোলা এতে দ্রুত প্রস্তুত হয়ে যায়।  একই সময়ে, আরশোলা চাষের জন্য মানুষের খুব বেশি অর্থ ব্যয় করার দরকার নেই।



এই লাভ


 সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদন অনুসারে, এমনকি ছোট কারখানাগুলি চীনে এক বছরে ১০০ টনেরও বেশি আরশোলা উৎপাদন করে।  এক বছরে আরশোলা দিয়ে প্রায় ১.৫০ কোটি টাকা আয় করা যায়।  চীনের অনেক ব্যবসায়ী এই ব্যবসায় তাদের অর্থ বিনিয়োগ করে ভালো আয় করছেন।  তবে আরশোলা কোন দামে বিক্রি হবে তা ঠিক করে ওষুধ কোম্পানিগুলো।  তবুও বিনিয়োগের তুলনায় এই ব্যবসায় লাভ অনেক বেশি।  ভারতেও ওষুধ কোম্পানিগুলোর ওষুধ তৈরিতে আরশোলা লাগে।  এমতাবস্থায় এটি অনুসরণ করে ভালো আয় করা যায়।


 ওষুধ তৈরিসহ এসব কাজে আরশোলা ব্যবহার করা হয়


 আবর্জনা নির্মূল করা ছাড়াও, সৌন্দর্য পণ্য এবং ওষুধ তৈরিতেও আরশোলা ব্যবহার করা হয়।  বিশেষজ্ঞদের মতে, আরশোলা থেকে তৈরি ওষুধ অনেক বড় রোগ নিরাময় করে।  এর মধ্যে রয়েছে প্রতিদিনের মতো পেপটিক আলসার, ত্বকের ফুসকুড়ি, ক্ষত এবং পাকস্থলীর ক্যান্সার।  এ ছাড়া হাড় ভাঙার পর শরীরে যে ফোলাভাব দেখা দেয় তাও আরশোলা থেকে তৈরি ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা করা যায়।  আরশোলায় প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন পাওয়া যায়।  এর পাউডার রুটি, পাস্তা এবং প্রোটিন বার তৈরিতে সাহায্য করে।


No comments:

Post a Comment

Post Top Ad