ফুড পয়জনিং এড়াতে এই পদ্ধতি অনুসরণ করুন, গ্রীষ্মে কোনো রোগ হবে না - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Saturday, 30 April 2022

ফুড পয়জনিং এড়াতে এই পদ্ধতি অনুসরণ করুন, গ্রীষ্মে কোনো রোগ হবে না


গ্রীষ্মের তাপমাত্রা ধীরে ধীরে বাড়ছে। এ মৌসুমে জ্বর, কাশি, সর্দিতেও আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। এই মৌসুমে রোগ সংক্রামনের ঝুঁকি বেশি থাকে। গ্রীষ্মকালে খাবারে বিষক্রিয়ায় ম্যালেরিয়া হওয়ার আশঙ্কা সবচেয়ে বেশি। গ্রীষ্মে খাদ্যে বিষক্রিয়া আরও বেড়ে যায় এবং লোকেরা এটি এড়ানোর উপায়গুলি সন্ধান করে। এমন পরিস্থিতিতে আপনারও যদি ফুড পয়জনিং হয়ে থাকে, তাহলে আমরা আপনাকে বলি কীভাবে তা এড়ানো যায়। এর মাধ্যমে আপনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন। এখানে কিছু টিপস দেওয়া হল, এই টিপসের সাহায্যে আপনি ফুড পয়জনিং এড়াতে পারেন। 


গ্রীষ্মে খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণ 

গ্রীষ্মকালে খাদ্যে বিষক্রিয়ার সমস্যায় ভোগেন বেশিরভাগ মানুষ। এই দিনগুলিতে ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি খুব বেশি হয়। এই গ্রীষ্মের মৌসুমে মানুষ বলে বাইরের খাবার বেশি খেতে। খাবার বাইরে রেখে দিলে তাও নষ্ট হয়ে যায়। এ কারণেই ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধি রোধ করতে খাবার বেশিক্ষণ ফ্রিজের বাইরে রাখা উচিত নয়। এতে করে ব্যাকটেরিয়া পেটে গিয়ে শরীর নষ্ট করে দেয়। 


আমরা আপনাকে বলি যে গ্রীষ্মে, কাঁচা মাংস, ডিম, সামুদ্রিক খাবার, দুগ্ধজাত খাবার, ফেনাযুক্ত খাবার, উচ্ছিষ্ট খাবার, পাস্তা ম্যাগি বা ময়দা থেকে তৈরি যে কোনও কিছু খুব দ্রুত নষ্ট হতে শুরু করে। এই সব জিনিস ফ্রিজে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়। কোনো অবশিষ্ট খাবার বাইরে রেখে আবার খেয়ে ফেললে ফুড পয়জনিং হতে পারে। 


গরমে বাতাসের সঙ্গে ব্যাকটেরিয়া আসে 

ফুটানো জল পান করুন- এই ঋতুতে ফুড পয়জনিং ও অনেক রোগ থেকে বাঁচতে সকালে ফুটানো জল পান করতে পারেন। হালকা গরম জল পান পেটের জন্য খুবই ভালো। সকালে ঘুম থেকে উঠলে, আপনি হালকা গরম জলের খাবারে বিষক্রিয়া হওয়ার ঝুঁকি কমিয়ে দেন। পৃষ্ঠ নিজেই ম্যালেরিয়ার মত রোগ কমিয়ে দেবে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad