জানেন কি কেন হয় জন্ডিস? - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 2 August 2022

জানেন কি কেন হয় জন্ডিস?


জন্ডিস হলে রোগীদের চোখ হলুদ হয়ে যায় এবং ত্বকও ফ্যাকাশে হয়ে যেতে পারে।  জন্ডিস রোগীদের মধ্যে যে লক্ষণগুলো দেখা যায় তা হলো-


প্রস্রাবের রঙ পরিবর্তন


 অবিরাম জ্বর


 ওজন কমানো


 দুর্বল শরীর


 ক্ষুধামান্দ্য


 কোষ্ঠকাঠিন্য ও ডায়রিয়ার সমস্যা


 বমি এবং বমি বমি ভাব


জন্ডিস এড়ানোর প্রতিকার-


খাবারের অশান্তি এবং দুর্বল জীবনযাপনের কারণে জন্ডিসের সমস্যা হয়ে থাকে।  এই রোগের রোগীদের ডায়েট থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়।  যারা বেশি অ্যালকোহল খান তাদের মধ্যে জন্ডিসের ঝুঁকি বেশি।  তাই জন্ডিসের রোগীদের অ্যালকোহল খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।  জন্ডিস প্রতিরোধে এই বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে-


 অ্যালকোহল সেবন এড়ানো উচিত।


 বেশি ভাজা ও মশলাদার খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।


 তাজা এবং পরিষ্কার খাবার খান।


 রাস্তার খাবার এবং ফাস্ট ফুড খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।


 নিয়মিত ব্যায়াম করুন।


 জন্ডিস এড়াতে, নোনতা, মশলাদার, তৈলাক্ত খাবারের পরিমাণ সীমিত করুন এবং অ্যালকোহল পান করবেন না।  এতে করে জন্ডিসের সমস্যা বাড়তে পারে।  এ ছাড়া কার্বোহাইড্রেট সমৃদ্ধ খাবার আপনার ডায়েট থেকে দূরে রাখুন।  আপনি যদি জন্ডিসের লক্ষণগুলি দেখেন তবে পরীক্ষা করুন এবং ডাক্তারের পরামর্শের ভিত্তিতে চিকিৎসা নিন।


কী কারণে জন্ডিস হয়: জন্ডিস লিভারের একটি গুরুতর রোগ। এ রোগে সঠিক সময়ে চিকিৎসা না নিলে রোগীর মৃত্যু হতে পারে। আসলে, শরীরে সিরাম বিলিরুবিনের পরিমাণ বেশি হলে জন্ডিস হয়।  নবজাতক শিশুরাও এই রোগের শিকার হয়।  তবে সময়মতো চিকিৎসা ও খাদ্যাভ্যাস উন্নত করলে এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।  জন্ডিসের সমস্যায় শরীর থেকে ফিল্টার হয়ে যাওয়া বিলিরুবিন লিভারে পৌঁছায় না, যার কারণে শরীরে বিলিরুবিনের পরিমাণ বাড়তে থাকে।  জন্ডিসের প্রথম লক্ষণ হল আপনার চোখ হলুদ হয়ে যাওয়া।  এই সমস্যায় চোখের সাদা অংশ হলুদ হয়ে যায়।  জন্ডিস রোগে সঠিক সময়ে চিকিৎসা না পাওয়ায় রোগীর অবস্থা মারাত্মক আকার ধারণ করে এবং এর ফলে রোগীর জীবনও নষ্ট হতে পারে।  আসুন জেনে নিই কেন জন্ডিস হয় এবং এর প্রাথমিক লক্ষণগুলো কী কী?


জন্ডিস কেন হয়? 


 জন্ডিসকে ভাইরাল হেপাটাইটিস বা জন্ডিসও বলা হয়।  সাধারণ ভাষায় এই সমস্যাকে জন্ডিস বলে।  বাবু ঈশ্বর শরণ হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ চিকিৎসক ডাঃ সমীরের মতে, খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাত্রার ব্যাঘাতের কারণে জন্ডিস হয়।  জন্ডিসের সমস্যা প্রধানত তিন প্রকার- এগুলি প্রি-হেপাটিক জন্ডিস, পোস্ট-হেপাটিক জন্ডিস এবং হেপাটোসেলুলার জন্ডিস নামে পরিচিত।  রোগীর জন্ডিসের লক্ষণ দেখা গেলে ডাক্তার প্রথমে একটি পরীক্ষার পরামর্শ দেন।  এই রোগ পরীক্ষা করার জন্য সিরাম বিলিরুবিন পরীক্ষা এবং প্রস্রাব পরীক্ষা করা হয়।  দূষিত পানি, খাবার এবং খাবার সম্পর্কিত অন্যান্য জিনিস থেকেও জন্ডিস হতে পারে।  জন্ডিসের কিছু প্রধান কারণ হল-


ভারসাম্যহীন খাবার ও দূষিত জলের কারণে।


 হেপাটাইটিসের কারণে।


 একটি ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া।


 ম্যালেরিয়ার সমস্যার কারণে।


 সিকেল সেল রোগ।


 জেনেটিক কারণে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad