উজ্জ্বল ত্বকের জন্য ঘরেই তৈরি করুন ভাত দিয়ে ফেস মাস্ক - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Monday, 5 September 2022

উজ্জ্বল ত্বকের জন্য ঘরেই তৈরি করুন ভাত দিয়ে ফেস মাস্ক


খাবারের অভাব, দূষণ এবং ভুল পণ্য ব্যবহারের কারণে মুখের উজ্জ্বলতা অনেক সময় চলে যায়।  এমন পরিস্থিতিতে দামি বিউটি প্রোডাক্ট ব্যবহার না করে ঘরোয়া জিনিসের সাহায্যে মুখ ফুটিয়ে তুলতে পারেন।  মুখের সৌন্দর্য ধরে রাখতে বাড়িতে রাখা ভাতও আপনার অনেক কাজে আসতে পারে।  হ্যাঁ, আপনি ভাত দিয়ে সেরা মুখোশ তৈরি করতে পারেন।  এই ফেস মাস্কটি মুখকে দাগহীন, সুন্দর এবং উজ্জ্বল করতে সহায়ক হতে পারে।  এটি তৈরি করাও খুব সহজ।  চলুন জেনে নেই কিভাবে ঘরেই তৈরি করবেন চালের আটার ফেসপ্যাক।


 উপাদান


 1 থেকে 2 চা চামচ চালের আটা


 1 চা চামচ দই


1 চা চামচ কফি পাউডার


 কিভাবে ভাতের ফেসপ্যাক বানাবেন


 চালের গুঁড়ো, দই এবং কফির গুঁড়া ভালো করে মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন।  এরপর ব্রাশ বা হাতের সাহায্যে এই ফেস মাস্কটি মুখে লাগান।  এই ফেস মাস্কটি মুখে 10 থেকে 15 মিনিটের জন্য রেখে দিন।  এরপর স্বাভাবিক পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।  মুখ ধোয়ার পর ত্বকে ময়েশ্চারাইজার লাগান।  এই ফেস মাস্ক মুখের ট্যানিং দূর করতে এবং মুখে উজ্জ্বলতা আনতেও সাহায্য করবে।


 চালের আটার সাথে কাঁচা দুধ যোগ করে একটি মুখোশও তৈরি করা যেতে পারে।  এই ফেস মাস্ক মুখের দাগ দূর করার পাশাপাশি মুখকে নরম করতে সাহায্য করবে।


 রাইস ফেস মাস্ক লাগানোর উপকারিতা


 ত্বক উজ্জ্বল করতে


 চালের আটার ফেস মাস্ক মুখে লাগালে মুখে উজ্জ্বলতা আসে।  এতে উপস্থিত উপাদান ত্বকে ঝকঝকে এজেন্ট হিসেবে কাজ করে, যা ত্বককে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।  ত্বকে চালের আটা ব্যবহার করলেও ত্বকে উজ্জ্বলতা আসে।


 মৃত চামড়া অপসারণ


 চালের আটা মোটা হওয়ার কারণে ত্বকের মরা চামড়া দূর করতেও সহায়ক।  চালের আটা নিয়ে তাতে দুধ বা গোলাপ জল মিশিয়ে দারুণ স্ক্রাব তৈরি করুন।  এর সাহায্যে মরা চামড়া তুলে ফেলা যায় সহজেই।  চালের আটার মধ্যে উপস্থিত সূক্ষ্ম কণা ত্বকের মৃত কোষকে সহজেই দূর করে।


ব্রণ পরিত্রাণ পেতে


 চালের আটার ত্বকের অতিরিক্ত তেল ভিজিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে।  যার কারণে চালের আটা মুখে ব্রণ প্রতিরোধ করে।  ব্রণজনিত ফোলাভাব এবং লালভাব নিরাময়ে চালের আটাও সহায়ক।


 রাইস ফেস মাস্ক মুখের জন্য খুবই উপকারী।  উপরে উল্লেখিত জিনিসের সাথে মিশিয়ে মুখে ব্যবহার করা যেতে পারে।  রাইস ফেস মাস্ক মুখের রোদে পোড়া ভাব দূর করতেও সাহায্য করে।  এই ফেস মাস্ক সপ্তাহে একবার ব্যবহার করা যেতে পারে।  এই ফেস মাস্কটি লাগানোর সময়, মনে রাখবেন যে আপনি যদি কোনও ধরণের চুলকানি বা ফুসকুড়ির মুখোমুখি হন তবে তা অবিলম্বে মুখ থেকে সরিয়ে ফেলুন।  আপনার ত্বকের ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করার পরেই এটি আবার ব্যবহার করুন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad