খেলার মাঠে দুষ্কৃতী তাণ্ডব! বোমা হামলায় গুরুতর জখম ৫ শিশু - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 28 October 2022

খেলার মাঠে দুষ্কৃতী তাণ্ডব! বোমা হামলায় গুরুতর জখম ৫ শিশু


খেলার মাঠে বোমা হামলার অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। বোমার আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছে পাঁচ শিশু। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাদের সবার বয়স ১০ থেকে ১২ বছরের মধ্যে। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নরেন্দ্রপুরে। আহতদের পরিবারের দাবী, শুক্রবার দুপুরে মাঠে শিশুরা খেলছিল। এসময় কয়েকজন দুষ্কৃতকারী বোমা নিয়ে মাঠে উপস্থিত হয়। শিশুরা তাদের দেখে ফেলে। তারপর দুষ্কৃতীরা তাদের মাঠ ছেড়ে চলে যেতে বললেও তারা কথা শোনেনি এবং অভিযোগ, এরপরেই দুষ্কৃতীরা তাদের দিকে দুটি বোমা ছুঁড়ে মারে। এতে শিশুরা গুরুতর আহত হয়েছে।


অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। এলাকা ঘিরে রাখার পাশাপাশি চলছে পুলিশি টহলদারী। সেই সঙ্গেই অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।


পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বোমা হামলায় আহত পাঁচ ছেলের সবাই নরেন্দ্রপুর থানার দাসপাদা এলাকার বাসিন্দা। দাসপাদা এলাকার মাঠে দুষ্কৃতীরা তাদের লক্ষ্য করে দুটি বোমা ছুঁড়ে মারে বলে অভিযোগ। ঘটনার পর অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে একটি খালি ড্রাম ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। অভিযুক্তরা এখনও ধরা পড়েনি। তাদের খোঁজে অভিযান শুরু করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। আহত ওই শিশুদের চিত্তরঞ্জন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 


স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দাসপুর এলাকার ওই পাঁচ শিশু অন্যান্য দিনের মতো স্থানীয় মাঠে খেলছিল। খেলার সময় মাঠের এক কোণে রাখা বোমা দেখতে পায়। এ সময় মাঠে কয়েকজন দুষ্কৃতীও উপস্থিত ছিল। শিশুদের মাঠ ছেড়ে যেতে বললেও তারা মাঠ ছাড়তে চায়নি। এরপর দুষ্কৃতীরা একের পর এক বোমা ছুঁড়ে মারে বলে অভিযোগ। এ ঘটনায় পাঁচ শিশু গুরুতর আহত হয়েছে। বোমার শব্দ শুনে স্থানীয় লোকজন দৌড়ে এলে দুষ্কৃতকারীরা পালিয়ে যায়।


স্থানীয় বাসিন্দারা আহত শিশুদের উদ্ধার করে চিত্তরঞ্জন হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে তারা সেখানে ভর্তি রয়েছেন। এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। তবে ততক্ষণে দুষ্কৃতীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে গেছে। ওই খামার থেকে একটি খালি ড্রাম ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। ড্রামের ভিতরে বোমা রাখা ছিল এবং মোটরসাইকেলটি অপরাধী চক্রের বলে ধারণা করা হচ্ছে। পুলিশ ড্রাম ও মোটরসাইকেলটি আটক করে থানায় নিয়ে যায়। দোষীদের খুঁজে বের করতে তদন্ত শুরু হয়েছে।


নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে যে, তারা এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করে দোষীদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছে। অন্যদিকে এই বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তবে গোটা ঘটনায় আতঙ্কে রয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad