অশ্বগন্ধা পাতার উপকারিতা - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 23 November 2022

অশ্বগন্ধা পাতার উপকারিতা


আয়ুর্বেদে এমন অনেক ভেষজ আছে, যেগুলো স্বাস্থ্য সমস্যা দূর করতে ব্যবহার করা হয়।  এর মধ্যে একটি হল অশ্বগন্ধা।  অশ্বগন্ধা নামটির সাথে আপনি ভালোভাবে পরিচিত হবেন।  আয়ুর্বেদে অশ্বগন্ধাকে গুরুত্বপূর্ণ স্থান দেওয়া হয়েছে।  এটি একটি প্রাকৃতিক ইমিউনিটি বুস্টার।  এই কারণেই বেশিরভাগ মানুষ করোনার সময় এটি সেবন করেছে।  আপনি অবশ্যই আপনার খাদ্যতালিকায় অশ্বগন্ধা পাউডার বা অশ্বগন্ধা পাতার গুঁড়া অন্তর্ভুক্ত করেছেন।  আপনি চাইলে অশ্বগন্ধা পাতাও খেতে পারেন।  অশ্বগন্ধা পাতা অনেক শারীরিক সমস্যা দূর করতে উপকারী।  অশ্বগন্ধা পাতা অনিদ্রা, জয়েন্টের ব্যথা এবং মানসিক চাপ দূর করতে উপকারী।  Amrutam.co.in-এর প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ ও আয়ুর্বেদাচার্য অশোক গুপ্তের কাছ থেকে অশ্বগন্ধা পাতার উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন-

 অশ্বগন্ধায় পুষ্টিগুণ

আয়ুর্বেদে অশ্বগন্ধা বহু রোগ নিরাময়ে ব্যবহৃত হয়।  এটি পুষ্টিগুণে ভরপুর।  অশ্বগন্ধায় রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য। এছাড়াও অশ্বগন্ধা ফাইবার, প্রোটিন, শক্তি, কার্বোহাইড্রেট, আয়রন, ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন সি সমৃদ্ধ।  আপনি ডাক্তারের পরামর্শে সাধারণভাবে অশ্বগন্ধা ব্যবহার করতে পারেন।

অশ্বগন্ধা পাতার উপকারিতা

অশ্বগন্ধা ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ। বেশিরভাগ মানুষ পাউডার আকারে অশ্বগন্ধা ব্যবহার করেন।  তবে আপনি চাইলে অশ্বগন্ধা পাতাও খেতে পারেন।  সঠিক উপায়ে এটি খেলে অনেক স্বাস্থ্য উপকার পাওয়া যায়।  জেনে নিন অশ্বগন্ধা পাতা খেলে কী হয়-

 1. অশ্বগন্ধা ত্বকের জন্য উপকারী

অশ্বগন্ধা ত্বকের জন্য খুবই উপকারী।  অশ্বগন্ধা পাতা খেলে চর্মজনিত রোগ সেরে যায়।  নিয়মিত অশ্বগন্ধা সেবনে বলিরেখা দূর হয়।  এটি একটি প্রাকৃতিক অ্যান্টিজিং ভেষজ।  এটি বার্ধক্যের লক্ষণ প্রতিরোধ করে।  অশ্বগন্ধা সেবন করলে ত্বক সবসময় তরুণ থাকে। আপনার যদি ত্বক সংক্রান্ত কোনো রোগ থাকে, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শে অশ্বগন্ধা সেবন করতে পারেন।

 2. অনিদ্রার সমস্যা দূর করুন

 অনিদ্রার সমস্যায় অস্থির থাকলে অশ্বগন্ধা পাতা খেতে পারেন।  অনিদ্রার সমস্যা দূর করতে অশ্বগন্ধা পাতা উপকারী।  এতে অনিদ্রার অভিযোগ দূর হয়।  অশ্বগন্ধা পাতা নিদ্রাহীনতা, মানসিক চাপ, উদ্বেগ এবং ক্লান্তি দূর করতে খাওয়া যেতে পারে।  মানসিক চাপ এবং ক্লান্তি দূর করার জন্য এটি একটি দুর্দান্ত ঘরোয়া প্রতিকার।  এর সেবনে শারীরিক ক্লান্তিও দূর হয়।

 3. কিভাবে অনাক্রম্যতা বাড়ানো যায়

 করোনার সময়ে, বেশিরভাগ মানুষ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে তাদের ডায়েটে অশ্বগন্ধা অন্তর্ভুক্ত করেছেন।  অশ্বগন্ধা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন সি সমৃদ্ধ, তাই এর সেবন শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।  শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আপনাকে অনেক রোগ থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে।  এটি সর্দি-কাশির সমস্যা থেকেও মুক্তি দেয়।

 4. গাউট অপসারণ

 শরীরে ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে গেলে শরীরের কিছু অভ্যন্তরীণ অঙ্গ বাতাসে ভরে যায়।  এর ফলে পেশী ও জয়েন্টগুলোতে ব্যথা ও ফোলাভাব হয়।  এই সমস্যাকে ভাটা রোগ বলা হয়।  আয়ুর্বেদে গাউট সারাতে অশ্বগন্ধা পাতা খাওয়া যেতে পারে।  অশ্বগন্ধা গাউট সারাতে সাহায্য করে।  এর সেবনে প্রদাহ, থাইরয়েড রোগে আরাম পাওয়া যায়।  পুরুষদের তুলনায় মহিলাদের মধ্যে এই সমস্যা বেশি দেখা যায়।

 5. ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি রোধ করে

 অশ্বগন্ধা ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি রোধ করে।  ক্যান্সারজনিত কেমোথেরাপির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কমাতেও অশ্বগন্ধা সহায়ক।  এটি ক্যান্সার রোগীদের জন্য উপকারী।  আপনি যদি ক্যান্সারের রোগী হয়ে থাকেন, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শে অশ্বগন্ধা খান।

 6. সুস্থ হার্টের জন্য অশ্বগন্ধা পাতা

অশ্বগন্ধা হার্টের স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারী।  এটিতে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা কোলেস্টেরল এবং ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রা কমায়।  তাই এটি হার্টকে সুস্থ রাখে।

 7. বিষণ্নতার চিকিৎসা

বিষন্নতার সমস্যা দূর করতে অশ্বগন্ধা উপকারী।  অশ্বগন্ধা খাওয়া মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও ক্লান্তি দূর করে। অশ্বগন্ধা স্ট্রেস হরমোন কর্টিসলের মাত্রা কমায়, যার ফলে স্ট্রেস কম হয়।  আয়ুর্বেদে, গুরুতর বিষণ্নতায় আক্রান্ত রোগীদেরও অশ্বগন্ধা দিয়ে চিকিৎসা করা হয়।

 8. পেশী শক্তিশালী করুন 

 অশ্বগন্ধা জয়েন্টের ব্যথা, কোমর ব্যথা উপশমে উপকারী।  এটি পেশী ভর বাড়ায়।  এটি পেশী কোষে ইনসুলিন সংবেদনশীলতা উন্নত করে।  অশ্বগন্ধা পুরুষদের পেশী বৃদ্ধি করে শরীরের চর্বি কমায়।

 9. রক্তাল্পতা দূর করুন

 অশ্বগন্ধা সেবনে শরীরে রক্তের অভাবও দূর হয়।  বেশিরভাগ মহিলাই রক্তস্বল্পতায় ভুগে থাকেন।  এক্ষেত্রে অশ্বগন্ধা সেবন করা যেতে পারে।

 10. অশ্বগন্ধা পুরুষ স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী

 অশ্বগন্ধা পুরুষদের জন্য খুবই উপকারী।  এটি খেলে শারীরিক দুর্বলতা দূর হয়।  এটি যৌন ক্ষমতা বাড়ায়।  শুক্রাণুর মান উন্নত করে।  এছাড়া অশ্বগন্ধা খেলেও বীর্য ঘন হয়।

 11. ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী

 আপনি যদি ডায়াবেটিক রোগী হয়ে থাকেন তবে ডাক্তারের পরামর্শে অশ্বগন্ধা খেতে পারেন।  অশ্বগন্ধা রক্তে শর্করার ভারসাম্য বজায় রাখে।  এছাড়া বাতের রোগীদের জন্যও এটি উপকারী।


 কিভাবে অশ্বগন্ধা পাতা খাবেন

 অশ্বগন্ধা পাতা খাওয়া খুবই উপকারী।  এজন্য প্রথমে অশ্বগন্ধা পাতা ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন।  এবার পিষে পেস্ট তৈরি করুন।  সকালে খালি পেটে দুধের সঙ্গে অশ্বগন্ধা পাতা খান।  আপনি এটি 3-5 মাস ধরে খেতে পারেন।  তবে স্বাস্থ্যগত কোনো সমস্যা থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শে অশ্বগন্ধা পাতা সেবন করুন।  অশ্বগন্ধা পাতা খাওয়ার সময় রাতে দই, তুর ডাল, ফল, রাইতা ইত্যাদি খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।  আয়ুর্বেদাচার্যের পরামর্শে সর্বদা অশ্বগন্ধা পাতা সেবন করুন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad