কেন হিন্দু ধর্মে ব্রাহ্ম মুহুর্তকে বিশেষ মনে করা হয়? সময়ে পূজা করলে আপনার মনস্কামনা পূরণ হয় - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 25 November 2022

কেন হিন্দু ধর্মে ব্রাহ্ম মুহুর্তকে বিশেষ মনে করা হয়? সময়ে পূজা করলে আপনার মনস্কামনা পূরণ হয়

 



 হিন্দুধর্মে, ব্রহ্ম মুহুর্তের সময়টিকে অত্যন্ত বিশেষ বলে বর্ণনা করা হয়েছে। অনেকেই নিশ্চয়ই শুনেছেন যে ব্রাহ্ম মুহুর্তে ভোরে ঘুম থেকে উঠলে বুদ্ধি তীক্ষ্ণ হয় এবং স্বাস্থ্যের উন্নতি হয়। এই সময়টিকে দেবতাদের বলে মনে করা হয়।

অনেকেই নিশ্চয়ই ব্রাহ্ম মুহুর্তের নাম শুনেছেন। হিন্দু ধর্মে এই সময়ের গুরুত্ব অনেক। ধর্মীয় শাস্ত্র থেকে শুরু করে ঋষি ও বয়োজ্যেষ্ঠরা এই মুহুর্তাকে অত্যন্ত উপকারী বলে বর্ণনা করেছেন। এটি দেবতাদের সময় বলে মনে করা হয়। এই সময়ে ঘুম থেকে উঠা একজন মানুষের জন্য শ্রেষ্ঠ বলে মনে করা হয়। কথিত আছে যে এই সময়ে যে ব্যক্তি জেগে ওঠে, তার বুদ্ধি প্রখর হয় এবং তার স্বাস্থ্যও সুস্থ থাকে। এ সময় পূজার মাধ্যমে ভগবানকে স্মরণ করাও অত্যন্ত শুভ বলে মনে করা হয়।


সময়


হিন্দুধর্মে, ব্রাহ্ম মুহুর্ত মানে সকালের সময়। হিন্দু ধর্মে, এই সময়টিকে সকালে ঘুম থেকে ওঠার সেরা সময় হিসাবে বিবেচনা করা হয়। এ সময় রাত শেষ হয়ে দিন শুরু হয়। ব্রাহ্ম মুহুর্তের সময় ভোর ৪টা থেকে ৫.৩০ পর্যন্ত ধরা হয়। এর সময়কাল দেড় ঘণ্টা।


উপাসনা


শাস্ত্র অনুসারে এই সময়টিকে মানুষের জেগে ওঠার সেরা সময় বলে মনে করা হয়। এ সময় ঘুম থেকে উঠলে রোগ দূরে থাকে এবং স্বাস্থ্য ভালো থাকে। ব্রাহ্ম মুহুর্তে উঠে পূজা করলে ভগবান সন্তুষ্ট হন এবং তাঁর কৃপাও লাভ করেন।


দেবতাদের আগমন


শাস্ত্রমতে, প্রাচীনকাল থেকে ঋষিরা এই সময়ে ঘুম থেকে উঠে স্নান ইত্যাদি করে ভগবানের আরাধনায় মগ্ন থাকতেন। এই সময়টিকে দেবতাদের সময় বলে মনে করা হয়। এটি একটি বিশ্বাস যে এই সময়ে দেবতা এবং পূর্বপুরুষদের আগমন ঘটে।



বি.দ্র: এখানে দেওয়া তথ্য প্রচলিত বিশ্বাস ও মান্যতার ওপর ভিত্তি করে লেখা। প্রেসকার্ড নিউজ এটি নিশ্চিত করে না।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad