জুতো পায়ে দিতেই মারাত্মক কাণ্ড! একের পর এক ৭ টি হার্ট অ্যাটাক, মৃত্যু ক্ষুদের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 4 November 2022

জুতো পায়ে দিতেই মারাত্মক কাণ্ড! একের পর এক ৭ টি হার্ট অ্যাটাক, মৃত্যু ক্ষুদের


জুতো পরতে গিয়ে যন্ত্রণায় ছটফটিয়ে মৃত্যু ক্ষুদের। চাঞ্চল্যকর ও মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। কিন্তু কেন এই পরিণতি? আসলে, শিশুটি যখন জুতা পরছিল, তখন সে জানতই না যে দক্ষিণ আমেরিকার সবচেয়ে বিপজ্জনক প্রজাতির একটি বিচ্ছু তার জুতোর মধ্যে বসে আছে। বিচ্ছুর কামড়ে শিশুটির একের পর এক ৭টি হার্ট অ্যাটাক হয় এবং পরে শিশুটি মারা যায়। শিশু মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়।


দ্য মিরর-এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শিশুটির নাম বারবোসা। তার বয়স মাত্র ৭ বছর।  জুতার মধ্যে বসে থাকা বিচ্ছুর কামড়ই মৃত্যুর কোলে ঠেলে দেয় তাকে। বিচ্ছু কামড়ানোর পর শিশুটি যন্ত্রণায় কাতরাতে শুরু করলে মা-বাবা তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে গেলেও তার জীবন বাঁচানো যায়নি।


বারবোসার মা বলেন যে, তিনি ব্রাজিলের সাও পাওলোতে থাকেন। তার পরিবার একটি ক্যাম্পিং ট্রিপের জন্য প্রস্তুত হচ্ছিল এবং তখনই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। তার সন্তানকে বিচ্ছু কামড়েছে।  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর আগে শিশুটির হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল ৭ বার।


তিনি বলেন, বারবোসার কান্না শুনে প্রথমে তিনি বুঝতে পারেননি কে তাকে কামড় দিয়েছে। ততক্ষণে তার পা লাল হতে শুরু করে এবং ব্যথা অনেক বেড়ে যায়। তখনই তিনি আন্দাজ করেন এটা নিশ্চয়ই বিচ্ছু।  


সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ৭ বছর বয়সী শিশু বারবোসাকে ব্রাজিলিয়ান হলুদ বিচ্ছু কামড়েছিল। এটি দক্ষিণ আমেরিকার সবচেয়ে বিপজ্জনক বিচ্ছু। এর বিষ খুবই মারাত্মক। বারবোসার মা জানান, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রথমে তার অবস্থার উন্নতি হতে শুরু করলেও পরে বারবার হার্ট অ্যাটাক হলে সে প্রাণ হারায়।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad