বিচারপতি রাজশেখর মান্থার এজলাস ঘিরে বয়কট অব্যাহত, বাংলায় আসবে বার কাউন্সিলরের দল - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 13 January 2023

বিচারপতি রাজশেখর মান্থার এজলাস ঘিরে বয়কট অব্যাহত, বাংলায় আসবে বার কাউন্সিলরের দল



শুক্রবারও তৃণমূল সমর্থিত আইনজীবীদের কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশেখর মান্থার আদালত বয়কট অব্যাহত রয়েছে।  অন্যদিকে, 'বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া' বিক্ষোভ চলাকালীন অবহেলার অভিযোগকে গুরুত্ব সহকারে নিচ্ছে।  ঘটনার তদন্তে বার কাউন্সিলের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল কলকাতা হাইকোর্টে পাঠানো হচ্ছে।  এই প্রতিনিধি দল রেজিস্ট্রার জেনারেলের সঙ্গে কথা বলবে।  ঘটনার দিনের সিসিটিভি ফুটেজও দেখবেন তারা।  বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া এই বিষয়ে রেজিস্ট্রার জেনারেলকে চিঠি পাঠিয়েছে।



 বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার প্রতিনিধি দলে রয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী রবীন্দ্র কুমার রাইজদা, এলাহাবাদ হাইকোর্টের বিচারপতি অশোক মেহতা এবং দিল্লী হাইকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য বন্দনা কৌর গ্রোভার।  শুক্রবার কলকাতায় আসতে পারেন বার প্রতিনিধিরা।  ১৭ জানুয়ারি তারা রিপোর্ট জমা দেবেন।



 বৃহস্পতিবার দিল্লীতে এক প্রেস কনফারেন্সে বার কাউন্সিলের প্রতিনিধিরা বলেছেন, “একজন বিচারকের বিরোধিতা করে যেভাবে পুরো বিচার প্রক্রিয়াকে ক্ষুন্ন করা হয়েছে।  অন্তত এটা আইনজীবীদের স্বার্থে নয়।  বার কাউন্সিল এ ধরনের ঘটনা বরদাস্ত করবে না।  প্রতিনিধি দলের রিপোর্টের ভিত্তিতে বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া এই বিষয়ে আরও সিদ্ধান্ত নেবে।"  উল্লেখ্য, গত সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশেখর মান্থার সামনে একদল আইনজীবী বিক্ষোভ শুরু করেন।পরে বার কাউন্সিলের কলকাতা শাখার কয়েকজন সদস্যও বিচারপতি রাজশেখর মান্থার আদালত বয়কটের প্রস্তাব দেন এবং অনশন চালিয়ে যান আদালতের সামনে।  অনেক মামলার শুনানিও স্থবির হয়ে পড়ে।  এমনকি হাইকোর্ট চত্বরে আইনজীবীদের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাক্কাধাক্কির ঘটনাও ঘটেছে।  এরপর বিচারপতির আদালতের বাইরে পোস্টার সাঁটানো হয়।



আইনজীবীদের কেন্দ্রীয় সংগঠন বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া বৃহস্পতিবার এই প্রেক্ষাপটে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।  বারের তরফে মননকুমার মিশ্র বলেন, “গত কয়েকদিনে যা হয়েছে তা আমরা দেখেছি।  আমরা কলকাতা বার কাউন্সিল থেকে একটি আবেদনও পেয়েছি, যা ঘটেছে তা অবিশ্বাস্য।  আমরা মনে করি, যারা এসব করেছে তাদের এ ধরনের কাজ করতে দেওয়া উচিৎ নয়।  আরও দুঃখজনক যে আইনজীবীদের শৃঙ্খলাবদ্ধ, ভদ্র, বিনয়ী ও সংযত হতে শেখায় বার কাউন্সিলের সদস্যরা।


 

 আইনজীবীদের প্রতিবাদে অনুপ্রাণিত হয়ে বিচারপতি রাজশেখর মান্থা কলকাতা হাইকোর্টে অবমাননার রুল জারি করেছেন, যার কারণে মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে।  অন্যদিকে বার কাউন্সিলের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা বারবার বলছেন, তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে আন্দোলনকারীদের বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।  তিন সদস্যের দল মঙ্গলবারের মধ্যে কলকাতা হাইকোর্টের ঘটনায় রিপোর্ট জমা দেবে।  বুধবার রায় দেবে বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া।  তবে বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে, প্রয়োজনে এই রিপোর্ট সুপ্রিম কোর্টেও যেতে পারে।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad