জেলা আদালতে বোমা! কমপ্লেক্স খালি করে তল্লাশি অভিযান পুলিশের - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, 24 January 2023

জেলা আদালতে বোমা! কমপ্লেক্স খালি করে তল্লাশি অভিযান পুলিশের



বোমার খবরে বিশৃঙ্খলা চণ্ডীগড় জেলা আদালত চত্বরে।  ৪৩ নম্বর সেক্টরে অবস্থিত কোর্ট কমপ্লেক্সে বোমা থাকার খবর ছিল।  অজ্ঞাত এক ব্যক্তি চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছেন।  এরপরই বিচারক, আইনজীবী, কর্মচারীসহ অন্যদের অবিলম্বে চলে যেতে বলা হয়।  তাৎক্ষণিকভাবে ৩০টি আদালত কক্ষ খালি করা হয়।  প্রাঙ্গণ খালি করে পুলিশ তদন্ত করছে।  ঘটনাস্থলে পুলিশের ঊর্ধ্বতন আধিকারিকরাও উপস্থিত রয়েছেন।



 চণ্ডীগড় পুলিশ একটি চিঠি পেয়েছিল যে চণ্ডীগড়ের জুডিশিয়াল কমপ্লেক্সে বোমা রাখা হয়েছে।  এই বোমাটি একটি গাড়িতে রয়েছে, যা দুপুর ১টায় বিস্ফোরিত হবে।  পুলিশ কোর্ট কমপ্লেক্স খালি করেছে এবং আদালত চত্বরে তল্লাশি অভিযান চলছে।  ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে পুলিশের বোমা স্কোয়াড।  তবে পুলিশ ফোনে বোমার খবর পেয়েছিল বলেও বলা হচ্ছে।  চণ্ডীগড়ের এসএসপি সহ এসপি সিটি, এসপি অপারেশন, ডিএসপি এবং সমস্ত শীর্ষ আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছান।



 পুলিশের প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, হিন্দিতে লেখা একটি চিঠিতে লেখা আছে, আজ সকাল ১ টায় আমি ৪৩ নম্বর সেক্টর এবং পঞ্চকুলাকে বোমা দিয়ে উড়িয়ে দেব।  আমার গাড়ি বোমা ভর্তি, যা বাইরে পার্ক করা আছে।  এরপর পুলিশ পুরো এলাকা সিল করে দিয়ে জেলা আদালত ভবন খালি করে দেয়।  এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালিয়ে বোমা উদ্ধার করা হচ্ছে।




পুলিশ তাদের অভিযান শুরু করলে আদালতে উপস্থিত লোকজন ভেবেছিল যে ২৬ জানুয়ারির কথা বিবেচনা করে পুলিশ হয়তো মক ড্রিল করছে, কিন্তু পরে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।  চণ্ডীগড় পুলিশের এক ঊর্ধ্বতন আধিকারিক বলেন, আমরা কন্ট্রোল রুম থেকে তথ্য পেয়েছি যে আদালত চত্বরে বোমা থাকতে পারে।  এরপর শুরু হয়েছে তল্লাশি অভিযান।  খালি করা হয়েছে আদালত চত্বর।  এলাকায় পুলিশ মোতায়েন বাড়ানো হয়েছে।



 চণ্ডীগড় জেলা আদালত ছাড়াও পঞ্চকুলা আদালতেও একই ধরনের হুমকি পাওয়া গেছে।  সেখানেও পুলিশ আইনজীবী, কর্মচারী ও অন্যান্য লোকজনকে বের করে নিয়ে তল্লাশি চালায়।  অন্যদিকে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা হাইকোর্টেও পুলিশি নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।



 একজন আইনজীবী বলেন, "আমাদের সঙ্গে সঙ্গে আদালত কক্ষ থেকে বেরিয়ে যেতে বলা হয়েছে।  বিচারক, অ্যাকাউন্ট স্টাফ এবং অন্যান্য কর্মীদেরও অবিলম্বে চলে যেতে বলা হয়েছে।  আদালত কক্ষে তল্লাশি চালাতে অন্তত ১০০ পুলিশ এসেছিলেন।" আদালত কমপ্লেক্সটি খুব ব্যস্ত বাস টার্মিনাসের কাছে।  চারদিকে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।  তবে এখন পর্যন্ত সন্দেহজনক কোনও বস্তু পাওয়া যায়নি।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad