পরীক্ষায় নকল করলেই যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, বাজেয়াপ্ত হবে সম্পত্তিও! কড়া আইন আনছে রাজ্য - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 13 January 2023

পরীক্ষায় নকল করলেই যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, বাজেয়াপ্ত হবে সম্পত্তিও! কড়া আইন আনছে রাজ্য


পরীক্ষায় নকল রুখতে বড়সড় পদক্ষেপ করতে চলছে রাজ্য। শুক্রবার উত্তরাখণ্ড রাজ্য মন্ত্রিসভা নকল বিরোধী কড়া আইন প্রণয়নের সিদ্ধান্ত নেয়। মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামির সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পরে, মুখ্য সচিব সুখবীর সিং সান্ধু বলেন, নিয়োগে দুর্নীতি প্রতিরোধে শীঘ্রই একটি কঠোর নকল বিরোধী আইন আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, উত্তরাখণ্ড সাব অর্ডিনেটর সার্ভিস কমিশন (UKSSSC)-এর পর স্টেট পাবলিক সার্ভিস কমিশন দ্বারা আয়োজিত   পাটোয়ারী নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কারণে সৃষ্ট ক্ষোভের মধ্যেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।  


এদিন মুখ্য সচিব বলেন, 'আইনে দোষীদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধানের পাশাপাশি দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত সম্পত্তিও বাজেয়াপ্ত করা হবে।' তিনি বলেন, 'পাবলিক সার্ভিস কমিশন কর্তৃক গত ৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত পাটোয়ারী ও লেখপাল পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে কিছু প্রশ্ন ফাঁসের কারণে বাতিল হওয়া পরীক্ষাটি আবার নেওয়া হবে। পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (এসটিএফ) এ পর্যন্ত প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে পাঁচ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে।'


মুখ্যসচিব বলেন, 'যেসব প্রার্থীরা আগেই এর জন্য আবেদন করেছেন তাদের আর আবেদন করতে হবে না, এর জন্য তাদের কোনও ফিও দিতে হবে না। পাশাপাশি এটিও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, প্রার্থীদের উত্তরাখণ্ড পরিবহন নিগমের বাসগুলিতে কোনও ভাড়া দিতে হবে না এবং প্রবেশপত্রটিই বাসে তাদের টিকিট হিসাবে বিবেচিত হবে।'


মুখ্যমন্ত্রীও বলেন, 'নকল বিরোধী আইনটি এত কঠোর করা হবে যে ভবিষ্যতে কেউ নিয়োগ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতি করার কথা ভাববে না।' বাতিল হওয়া পাটোয়ারী ও লেখপাল নিয়োগ পরীক্ষা প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'কোন স্তরে কী হয়েছে তা তদন্তের পরই জানা যাবে, তবে যারা কোনও স্তরে অন্যায় করবে, তাদের রেহাই দেওয়া হবে না।' তিনি আরও বলেন, 'যেখানেই নোংরামি থাকবে, তা অধস্তন সেবা নির্বাচন কমিশনে হোক বা অন্য কোথাও, যেখানেই আমাদের ছেলে-মেয়ের ভবিষ্যৎ নিয়ে খেলা হচ্ছে, আমরা কঠোর ব্যবস্থা নেব।'


উল্লেখ্য, উত্তরাখণ্ডে নিয়োগ পরীক্ষার পেপার ফাঁসের প্রক্রিয়ার যেন থামার লক্ষণ নেই। রাজ্য অধস্তন পরিষেবা নির্বাচন কমিশন দ্বারা পরিচালিত বেশ কয়েকটি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে গণ্ডগোলের পরে, সরকার সেগুলি পরিচালনার দায়িত্ব পাবলিক সার্ভিস কমিশনের হাতে তুলে দিয়েছিল।  


মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'যুবদের মনোবল বজায় রাখতে, রাজ্য পাবলিক সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শীঘ্রই পরীক্ষা পরিচালনা করে যুবকদের চাকরি দেওয়া সরকারের প্রথম অগ্রাধিকার। সরকার বেকার যুবদের একটি সুস্থ প্রতিযোগিতামূলক পরিবেশ দিতে বদ্ধপরিকর।'

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad