বন্দীদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করায় সংশোধনাগার হল তিন মহিলা পুলিশ কর্মীর - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Friday, 13 January 2023

বন্দীদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করায় সংশোধনাগার হল তিন মহিলা পুলিশ কর্মীর

 







সাধারণত, অপরাধীদের সংশোধনাগারে সাজা দেওয়া হয় যাতে তারা সংশোধনাগারের অভ্যন্তরে অবস্থান করে নিজেদের উন্নতি করতে পারে এবং যখন তারা কারাগার থেকে বেরিয়ে যায়, তারা আবার একই কাজ না করে, যার কারণে তাদের সংশোধনাগারে সাজা দেওয়া হয়।  তবে এমন অপরাধী খুব কমই আছে, যাদের জেলে যাওয়ার পর উন্নতি দেখা যায়।  কিন্তু সংশোধনাগারের পাহারাদাররা যদি তাদের সঙ্গে যোগ দেয় এবং তারাও নিয়ম ভাঙতে থাকে?  আজকাল এমনই একটি ঘটনা আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে, যেখানে সংশোধনাগারে বন্দীদের সঙ্গে ফ্লার্ট করার অপরাধে জেল খাটছেন তিন নারী অফিসার।  



ব্রিটেনে এই ঘটনা। এখানকার সবচেয়ে বড় সংশোধনাগারের কর্মীদের এখন দুর্নীতিবিরোধী প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে এবং তাও বন্দিদের সঙ্গে সম্পর্কের কারণে তিনজন নারী রক্ষীকে সংশোধনাগারে যেতে হয়েছে।  এই মহিলা গার্ডদের নাম হল জেনিফার গাভান, আয়েশা গান এবং এমিলি ওয়াটসন।  এই তিন নারী রক্ষীই গত তিন বছরে বন্দিদের সঙ্গে সম্পর্কের অভিযোগে কারাগারে গেছেন।  এমতাবস্থায় কারা প্রশাসন বলছে, যে কর্মী শাসন ভঙ্গ করবে তাকে অবশ্যই শাস্তি দেওয়া হবে।



দ্য সান-এর একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মহিলা গার্ড আয়েশা গুন একজন বিপজ্জনক বন্দী খুররম রাজাকের সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন, যিনি ডাকাতির ষড়যন্ত্রের জন্য ১২ বছরের সাজা ভোগ করছেন।  প্রায় এক বছর পর তাদের সম্পর্কের কথা জানা যায়।  কথিত আছে, এই নারী রক্ষী বন্দি রাজাককে একাধিক যৌন ফোন করেছিলেন।  ২০১৯ সালে মামলাটি প্রকাশ হলে তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত।  একইভাবে, এমিলি ওয়াটসনকেও ২০১৯ সালে একজন বন্দীর সঙ্গে সম্পর্কের জন্য এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।  একবার সংশোধনাগারের ভেতরে এক বন্দির সঙ্গে তার শারীরিক সম্পর্ক হয়, আবার দুবার সম্পর্ক করতে গিয়ে ধরা পড়ে।  এছাড়া কারাগারে ওই বন্দীর সঙ্গে অনেক সময় কাটিয়েছেন তিনি।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad