PCOD-এ আক্রান্ত মহিলাদের শীতকালে যেই বিষয়গুলি যত্ন নেওয়া উচিৎ - press card news

Breaking

Post Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, 18 January 2023

PCOD-এ আক্রান্ত মহিলাদের শীতকালে যেই বিষয়গুলি যত্ন নেওয়া উচিৎ



পলিসিস্টিক ওভারি ডিজিজ বা PCOD হল মহিলাদের মধ্যে ঘটে যাওয়া একটি রোগ। এই রোগে শরীরে হরমোন ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। এছাড়াও ডিম্বাশয়ে একটি সিস্ট তৈরি হয়। ভুল জীবনযাপনের অভ্যাসকে PCOD এর সবচেয়ে বড় কারণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। বর্তমান সময়ে ভুল খাদ্যাভ্যাস, ব্যায়ামের অভাব, মানসিক চাপ ইত্যাদি কারণে PCOD-এর উপসর্গ বাড়তে পারে। PCOD রক্তে ইনসুলিনের মাত্রাও বাড়িয়ে দিতে পারে। আগে এই রোগটি 30 থেকে 40 বছর বয়সী মহিলাদের মধ্যে দেখা যেত, কিন্তু বর্তমান সময়ে 16-17 বছর বয়সী মেয়েরাও PCOD দ্বারা আক্রান্ত হয়। শীত মৌসুমের আগমনের সাথে সাথে আমরা আমাদের স্বাস্থ্যের প্রতি উদাসীন হয়ে পড়ি, সেক্ষেত্রে PCOD-এর উপসর্গ বাড়তে পারে। PCOD এর উপসর্গ যাতে বাড়তে না পারে তার জন্য আপনি কিছু সহজ টিপসের সাহায্য নিতে পারেন যেগুলো সম্পর্কে আমরা আরও কথা বলব। এই বিষয়ে আরও ভাল তথ্যের জন্য, আমরা ডাঃ দীপা শর্মা, গাইনোকোলজিস্ট, ঝালকারিবাই হাসপাতাল, লখনউ-এর সাথে কথা বলেছি।


1. PCOD-এ স্বাস্থ্যকর শীতকালীন খাদ্য গ্রহণ করুন PCOD-এর উপসর্গ নিয়ন্ত্রণে ডায়েট বিশেষ ভূমিকা পালন করে। আপনার খাদ্য থেকে চিনি, পরিশোধিত কার্বোহাইড্রেট এবং প্রক্রিয়াজাত খাবার বাদ দিন। ডায়েটে পালং শাক, ব্রকলি, গাজর, মুলা এবং অন্যান্য মৌসুমি শাকসবজি অন্তর্ভুক্ত করুন। এ ছাড়া কমলা, আপেল, চিকু, পেয়ারা ইত্যাদি খান। শীতকালে একমুঠো বীজ এবং বাদাম খেতে ভুলবেন না। আপনার খাদ্যতালিকায় পুরো শস্য অন্তর্ভুক্ত করুন।


2. শীতকালে ডিহাইড্রেশন এড়িয়ে চলুন PCOD-এর উপসর্গ নিয়ন্ত্রণের জন্য জল খাওয়া জরুরি। পানি না খাওয়ার কারণে শরীর পানিশূন্যতার শিকার হয়। ডিহাইড্রেশন এবং ক্রমবর্ধমান PCOD ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, উচ্চ কোলেস্টেরল এবং অন্যান্য সমস্যা বাড়াতে পারে। PCOD এর সাথে সুস্থ থাকার জন্য বেশি করে পানি পান করুন। খাবারে পানি ছাড়াও ফল রাখুন। ফলের মধ্যে পানির পরিমাণ বেশি থাকে। এ ছাড়া শীতকালে সবজির তাজা স্যুপও খাওয়া যেতে পারে।


3. শীতকালে মানসিক চাপ কমানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করুন শীতকালে আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে মেজাজও প্রভাবিত হয়। অনেকেই শীতে বেশি খুশি থাকেন, আবার অনেকে এই সময়ে মানসিক চাপ অনুভব করেন। আপনার যদি PCOD থাকে, তাহলে আপনার মেজাজ ভালো রাখতে শীতকালে মেডিটেশন করতে ভুলবেন না। PCOD-এর লক্ষণগুলি ধ্যানের মাধ্যমে অনেকাংশে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। এ ছাড়া পর্যাপ্ত পরিমাণে জল পান করুন। এছাড়াও, ভোরে গভীর শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম করতে ভুলবেন না।


4. ব্যায়ামের মাধ্যমে PCOD উপসর্গ কমিয়ে দিন


শীতকালে PCOD-এর উপসর্গ নিয়ন্ত্রণে ব্যায়ামের সাহায্য নিন। এটি প্রয়োজনীয় নয় যে আপনি উচ্চ তীব্রতা ব্যায়াম অবলম্বন করুন। আপনার বাড়ির আরামে যোগব্যায়াম বা ওয়ার্কআউট করুন। ব্যায়ামের পরিবর্তে সময় ঠিক করে হাঁটাও করতে পারেন। প্রতিদিন 40 থেকে 150 মিনিটের জন্য বাইরে হাঁটুন। রোদে বাইরে থাকার ফলে আপনি ভিটামিন ডিও পাবেন। শরীরে সঠিক পরিমাণে ভিটামিন ডি থাকলে মানসিক চাপ থাকবে না। 


5. ঘুম PCOD-এ হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখবে PCOD-এর লক্ষণগুলি নিয়ন্ত্রণে রাখতে শীতকালে ভালো ঘুম নিন। PCOD-এ হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখতে ভালো ঘুম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ঘুমালে মন শান্ত থাকে এবং মানসিক চাপও কম থাকে। ঘুমালে শরীরের ফোলা ও ব্যথাও কমে যায়। PCOD-এ ব্যথা কমাতে সময়মতো ঘুমানোও একটি উপকারী পদক্ষেপ হতে পারে। ঠান্ডা আবহাওয়ায় সহজেই ঘুম আসে। এই সুবিধা নিন এবং পর্যাপ্ত ঘুমিয়ে নিন। রাতে সময়মতো ঘুমান এবং রাতে ফোন ব্যবহার এড়িয়ে চলুন।

No comments:

Post a Comment

Post Top Ad